৪০ লাখ টাকার মাছ ও ঝিনুক বিষে মরল

March 8, 2020, 2:55 pm নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কাইতলা উত্তর ইউনিয়নের নারুই ব্রাহ্মণহাতা গ্রামের একটি মাছের প্রকল্পে শনিবার রাতের আঁধারে বিষ ঢেলে প্রায় ৪০ লাখ টাকার মাছ ও ঝিনুক (মুক্তা) মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার জন্য মাছের ওই প্রকল্পের মালিক পুলিশের এক এসআইকে দায়ী করে মামলা দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে পুলিশের ওই কর্মকর্তা নিজেকে 'নির্দোষ' দাবি করে ঘটনাটিকে ষড়যন্ত্রমূলক বলছেন। এদিকে ঘটনার পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নারুই ব্রাহ্মণহাতা গ্রামে প্রায় আড়াই একর জায়গায় করা বিশাল ওই মাছের প্রকল্পটিতে আজ রবিবার ভোরে হাজারো মাছ মরে ভেসে উঠতে দেখে এলাকাবাসী। পরে প্রকল্পের মালিককে খবর দেওয়া হলে, তিনি দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন।

প্রকল্পের মালিক আবু সালেক মোল্লা বলেন, আড়াই একর জায়গায় বিভিন্ন প্রজাতির লক্ষাধিক মাছ ও মূল্যবান ঝিনুক চাষ করা হয়েছিলে। যা বিক্রি করলে ৪০ লক্ষাধিক টাকা পেতাম। তিনি অভিযোগ করেন, পূর্বশত্রুতার জের ধরে গ্রামের এসআই আশরাফ ও কামাল ফকির গং পরিকল্পিতভাবে আমার এই ক্ষতি করেতে পারে। আমি আজই মামলা করবে।

তবে বর্তমানে সোনাগাজী থানায় কর্মরত পুলিশের এসআই সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এটি সম্পূর্ণ মিথ্যে। আমি এখন বান্দরবনে। মূলত সালেক মোল্লা নিজেই একজন বাজে লোক। একবার গরু চুরির অভিযোগে সে জেলও খেটেছে।

নবীনগরে পূর্বাঞ্চলের শিবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ইহসানুল হক বলেন, ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মাছের প্রকল্পের মালিক এতে ৪০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করছেন। তবে এখনও মামলা হয়নি।