সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণে পক্ষে-বিপক্ষে আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণের খসড়া তালিকা প্রকাশের পর পক্ষে-বিপক্ষে দুই শতাধিক আবেদন জমা পড়ছে। আবেদনে ইসির প্রস্তাবিত সীমানায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন সরকারদলীয় কয়েকজন মন্ত্রী-এমপিও। এরই মধ্যদিয়ে আজ (রোববার) এ খসড়া তালিকার ওপর দাবি আপত্তির জানানোর সময় শেষ হচ্ছে।

এর আগে ১৪ মার্চ ১৬টি জেলার ৩৮টি আসনের সীমানায় পরিবর্তন এনে খসড়া তালিকা প্রকাশ করে ইসি।
চূড়ান্ত খসড়া তালিকায় যে ১৬টি জেলার ৩৮টি আসনের সীমানায় পরিবর্তন আনা হয়েছে সেগুলো হলো- নীলফামারী ৩, ৪; রংপুর ১, ৩, ৪; কুড়িগ্রাম ৩, ৪; পাবনা ১, ২; মাগুরা ১, ২; খুলনা ৩, ৪; সাতক্ষীরা ৩, ৪; জামালপুর ৪, ৫; ঢাকা ২, ৩, ৭, ১৪, ১৯; নারায়ণগঞ্জ ৪, ৫; শরীয়তপুর ২, ৩; মৌলভীবাজার ২, ৪; ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৫, ৬; কুমিল্লা ১, ২, ৬, ১০; নোয়াখালী ৪, ৫ এবং চট্টগ্রাম ৭, ৮ আসনের সীমানায় পরিবর্তন আনা হয়েছে।

ঢাকা-১৪ আসনের সঙ্গে কাউন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদ যুক্ত করার দাবি জানিয়ে ইসিতে আবেদন করেছেন সংক্ষিত আসনের এমপি সাবিনা আক্তার তুহিন। এছাড়াও অভিন্ন তিন আবেদনে খসড়া তালিকায় থাকা ঢাকা-৩ আসনের সীমানা থেকে কাউন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদটি বিচ্ছিন্ন করে ঢাকা-১৪ আসনে অন্তর্ভুক্তির দাবি জানানো হয়েছে।

সাতক্ষীরা-৩ ও ৪ আসনের পরিবর্তনের ফলে সাতক্ষীরা-৩ আসনের এমপি ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হকের বাড়ি কালীগঞ্জের নলতা সাতক্ষীরা-৪ আসনের মধ্যে ঢুকে পড়েছে। এ জন্য তিনিও আপত্তি জানিয়েছেন।

মাগুরা-১ ও ২ আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণের বিরোধিতা করে এবং বর্তমান সীমানা বহাল রাখার দাবিতে অন্তত ৬টি অভিন্ন আবেদন নির্বাচন কমিশনে জমা পড়েছে। আবেদনকারীর মধ্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদারও রয়েছেন।

এছাড়া নোয়াখালী-৫ আসনের সীমানা সংরক্ষণ নিয়েও আপত্তি এসেছে। এ রকম প্রায় দুই শতাধিকা আপত্তি জমা পড়েছে।

এর আগে ইসি সচিব হেলালু্দ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের জানান, কমিশন দাবি আপত্তির ওপর শুনানি করে ৩০ এপ্রিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ৩০০ আসনের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করবে।