প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টিতে ধসে পড়লো তাজমহলের স্তম্ভ

April 12, 2018, 3:39 pm নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

প্রচণ্ড বাতাস ও বৃষ্টিতে ধসে পড়লো ভারতের আগ্রার তাজমহলের একটি স্তম্ভ। স্তম্ভটি ছিল দক্ষিণ দিক দিয়ে তাজমহলে ঢোকার দরজায়।

বুধবার সন্ধ্যায় আগ্রায় দমকা হাওয়াসহ ঘন্টায় ১৩০ কিলোমিটার বাতাসের বেগে একটি ঝড় বয়ে যায়। ওই ঝড়ে তাজমহলের দক্ষিণ দিকের রাজকীয় প্রবেশদ্বারের পাথরের একটি মিনার ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের বরাত দিয়ে জানিয়েছে এনডিটিভি।

কয়েকটি সূত্রের বরাতে পিটিআই জানিয়েছে, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকের এ ঘটনায় দক্ষিণ গেটের একটি মিনার ভেঙে পড়ে এবং একটি ছোট সাদা গম্বুজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

প্রবল বাতাসে ভেঙে পড়া ১২ ফুটি মিনারটির সঙ্গে ধাতুর তৈরি কারুকার্য খচিত একটি শীর্ষও ছিল। মিনারটি দরওজা-ই-রওজা নামে পরিচিত প্রধান প্রবেশদ্বারের একটি অংশ।

পর্যটকরা এই প্রবেশদ্বারটি দিয়েই তাজমহলের রূপ প্রথম দেখতে পান, যা তৈরি হয়েছিল সপ্তদশ শতকে মোগল আমলে।

ঘটনার বিষয়ে মন্তব্যের জন্য বেশ কয়েকবার চেষ্টা করেও আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়ার (এএসআই) কোনো কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পিটিআই।

তাজমহলের প্রধান প্রবেশদ্বার দরজা-ই-রওজা একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপত্যকীর্তি। এটি প্রধানত মার্বেল পাথরের তৈরি। এর নকশায় প্রথম দিকের মোগল সম্রাটদের স্থাপত্যকীর্তির ছাপ পাওয়া যায়।

এর আগে ২০১৬-র প্রথমদিকে তাজমহলের একটি মিনার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল বলে জানা গেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদনে পরিষ্কারকরণ কাজ চলার সময় ওটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল এমন ধারণা পাওয়া গেলেও ওই সময় এর জন্য বানরদের ওপর দায় চাপিয়েছিল এএসআই।

আগ্রা ও এর আশপাশের এলাকা দিয়ে বয়ে যাওয়া এই ঝড়ে গাছপালা ও বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে পড়ার পাশাপাশি পাঁচজন নিহত হন। মাথুরা জেলায় পৃথক দুটি ঘটনায় ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা ও তিনটি শিশু নিহত হয়; বিজনরে অপর একজন নিহত হন।