বর্বর পিতা

April 19, 2018, 4:35 pm নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

নিজের মেয়েকে একাধিক বার ধর্ষণের অভিযোগে এক পিতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে ধর্ষক দুলাল মিয়া (৪২)কে আসামি করে মামলা করেছে ওই ধর্ষিত মেয়ে। রাতেই পুলিশ সোনারগাঁ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষক দুলালকে গ্রেপ্তার করে। পরদিন তাকে আদালতে পাঠানো হয়। 
মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ৫-৬ মাস আগে থেকে সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর ইউনিয়নের ঝাউচর গ্রামের জয়নাল মিয়ার বাড়িতে মা-বাবা ও ভাইদের সঙ্গে বসবাস করতো ধর্ষিত কিশোরী (১৪)। ওই বাড়িতে গত ৪ মাস আগে লম্পট পিতা দুলাল মিয়া তাকে ধর্ষণ করে।এ সময় ধর্ষিতা চিৎকার করলে ধর্ষক তাকে গলাটিপে ধরে এবং ঘটনাটি কাউকে জানলে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তারপরও ধর্ষণের ঘটনাটি ধর্ষিতা তার মাকে জানায়।
তবে মায়ের জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা অস্বীকার করেন দুলাল। পরে মা বাসা পরিবর্তন করে অন্য এলাকায় বাসা ভাড়া নেন। ওই বাড়িতেও ধর্ষক দুলাল মেয়েকে ৫-৬ বার ধর্ষণ করে। সর্বশেষ গত ২রা এপ্রিল পুনরায় ওই বাসায় জোর করে ধর্ষণ করে। কিন্তু ধর্ষিতা তার মাকে বারবার বলে কোন ফল পায়নি। নিরুপায় হয়ে তার সহকর্মী আয়েশা বেগম ও সানজিদাকে জানায়। পরে তারা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমানের দেহরক্ষী রাসেল মীর ও ঢাকা এসবির সহকারী উপ-পরিদর্শক রেদোয়ানকে বিষয়টি অবহিত করেন। পুলিশের একটি টিম সোমবার রাতেই ঝাউচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষক দুলালকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। 
এ ঘটনায় গতকাল ধর্ষিতা কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে এবং ধর্ষক দুলালকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ধর্ষক দুলাল মিয়া নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ থানার উত্তর চাঁদখান ডোঙ্গা গ্রামের মাহির উদ্দিনের ছেলে।