দুই সিটির শীর্ষ পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রত্যাহারের দাবি বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

গাজীপুর ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনে ভোট সামনে রেখে দলীয় মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের গণগ্রেফতার করা হচ্ছে অভিযোগ তুলে দুই সিটি পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তার প্রত্যাহার চেয়েছে বিএনপি।

রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। 

তিনি বলেন, পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দলের নেতা-কর্মীদের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখাচ্ছে; চলছে গণগ্রেফতার। অবাধ, সুষ্ঠু ও ভীতিমুক্ত নির্বাচনী পরিবেশ দূরে থাক সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্যে পরিণত হচ্ছে দুই সিটি কর্পোরেশন এলাকা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যুক্ত হয়েছে সরকারের ইচ্ছাপূরণে ধানের শীষের প্রার্থীর সমর্থকদের এলাকা ছাড়া করতে।

রিজভী বলেন, এমতাবস্থায় অবিলম্বে গাজীপুর পুলিশ সুপার ও খুলনা মেট্টোপলিটন সিটির পুলিশ কমিশনারকে প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় দুই সিটি কর্পোরেশনেই ভোটহরণের নির্বাচন হবে। সেইসঙ্গে দুই সিটিতে ভোটারদের মধ্যে আস্থার পরিবেশ তৈরি করতে ফের সেনা মোতায়েনের দাবি জানান তিনি।

দুই সিটি কর্পোরেশনে মন্ত্রী-এমপিরা আচরণবিধি লঙ্ঘন করে সভা করছে- অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নিকটাত্মীয় শেখ হেলাল এমপি ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ খুলনায় দুই বার এসে প্রশাসনের শীর্ষ ব্যক্তিদের সাথে বৈঠক করেছেন। সরকারের অত্যন্ত প্রভাবশালী ওই দুই ব্যক্তির নির্দেশনাতেই পুলিশ প্রশাসন নগরীজুড়ে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। দুই সিটিতে প্রশাসনের ছত্রছায়ায় ক্ষমতাসীন দলের অস্ত্রধারীরা নির্বিঘ্নে অবস্থান নিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর নাসিরউদ্দিন, শওকত মাহমুদ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ভিপি জয়নাল আবেদীন, কেন্দ্রীয় নেতা এবিএম মোশাররফ হোসেন ও মুনির হোসেন।