প্রধানমন্ত্রীর বেতন ২ লাখ, আর ব্যাংকের সিইও’র ১৫ লাখ!

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

ব্যাংকের একজন এক্সিকিউটিভ, এমডি, সিইও এর বেতন ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকা। অথচ আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পান দুই লাখ টাকা। এটা হতে পারে না। ব্যাংকের নির্বাহীদের বেতনে লাগাম টানা দরকার। বললেন বন ও পরিবেশ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. হাছান মাহমুদ।

রোববার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে প্রাক-বাজেট আলোচনায় তিনি এ অভিমত দেন। এসময় তিনি বিদেশি মোবাইল কোম্পানির লাগামও টেনে ধরার পরামর্শ দেন।

প্রাক-বাজেট আলোচনায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কাছে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তাদের অভিমত তুলে ধরেন।

বিদেশি মোবাইল কোম্পানির লাগাম টেনে ধরার কথা জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, তারা বিদেশে সব লাভের টাকা নিয়ে যাচ্ছেন। এটা যেন সব নিয়ে যেতে না পারে সে বিষয়ে নজরদারি বাড়ানো উচিত।

“তাদের এখন ব্যয় উঠে গেছে। এখন তারা লাভ করছে। মোবাইল কোম্পানির শেয়ারের কিছু অংশ যেন দেশি বেসরকারি কোম্পানি কিনতে পারে সে ব্যবস্থা করা প্রয়োজন।”

তিনি বলেন, ব্যাংকের একজন এক্সকিউটিভ, এমডি, সিইও এর বেতন ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকা। এটার লাগাম টেনে ধরা দরকার। যেখানে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর বেতন দুই লাখ টাকা। এটা হতে পারে না। কারণ ব্যাংকের টাকা জনগনের টাকা।

উপজেলা পর্যয়ে সেরা ট্যাক্স দাতাদের পুরস্কার দেয়ার আবেদন জানিয়ে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, এতে করে উপজেলা পর্যায়ে ট্যাক্সদাতা বাড়বে।

হাছান মাহমুদ বলেন, আমরা এখনও গাড়ি আমদানি করি। কিন্তু আমাদের অনেক প্রতিষ্ঠান গাড়ি বানাতে আগ্রহী। তাদের ট্যাক্স সুবিধাসহ প্রয়োজনীয় সুবিধা দেয়া প্রয়োজন। এতে করে আমাদের অনেক টাকা সাশ্রয়ী হবে।