ইরানের পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা ট্রাম্পের

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই সঙ্গে ইরানের উপর নতুন করে অবরোধ আরোপের ঘোষণাও দিয়েছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ওয়াশিংটনে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প ওই ঘোষণা দেন।

পূর্বসূরি বারাক ওবামার আমলে সম্পাদিত এই চুক্তিকে ‘ক্ষীয়মান ও পচনশীন’ অভিহিত করে ট্রাম্প বলেন, একজন মার্কিন নাগরিক হিসেবে এই চুক্তি তার কাছে ‘লজ্জাজনক’ ছিল।

ইউরোপীয় মিত্রদের পরামর্শের বিরুদ্ধে গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ২০১৫ সালে এই চুক্তি হওয়ার পর ইরানের উপর থেকে যেসব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছিল সেগুলো তিনি পুনরায় আরোপ করবেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের জবাবে ইরান জানিয়েছে, পরমাণু শক্তি ও অস্ত্র তৈরি প্রধান উপাদান ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ প্রক্রিয়া পুনরায় শুরুর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই ঘোষণা তাদের প্রতিশ্রুতির বরখেলাপ। তিনি বলেন, ‘আমি ইরানের পরমাণু শক্তি সংস্থাকে প্রয়োজন পড়লে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছি। যাতে কোনো সীমাবদ্ধতা ছাড়াই আমরা শিল্প পর্যায়ে আমাদের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ শুরু করতে পারি।’

রুহানি আরও বলেছেন, তিনি আরও ‘কয়েক সপ্তাহ অপেক্ষা’ করবেন। ওই পরমাণু চুক্তির বিষয়ে প্রথমে মিত্র ও অন্যান্য স্বাক্ষরকারী পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করবেন, তার পর সিদ্ধান্ত নেবেন।

ট্রাম্পের ওই ঘোষণার পর প্রতিক্রিয়া এসেছে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানির দিক থেকে। তারা এক বিবৃতিতে ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তকে ‘দুঃখজনক ও উদ্বেগজনক’ বলে উল্লেখ করেছেন।

২০১৫ সালে ইরানের বিতর্কিত পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে দেশটির সঙ্গে চুক্তি করে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া ও জার্মানি। চুক্তির আওতায় ইরান নিজেদের পরমাণু কর্মসূচি স্থগিত রাখার ব্যাপারে একমত হয়। এর বিনিময়ে দেশটির ওপর থেকে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আংশিক তুলে নেওয়া হয়। তবে শুরু থেকে এই চুক্তি নিয়ে সমালোচনা করেন ট্রাম্প। ২০১৬ সালে নির্বাচনী প্রচারণার সময় ট্রাম্প ঘোষণা দেন, ক্ষমতায় গেলে তিনি পূর্বসূরি বারাক ওবামার করা এ চুক্তি বাতিল করবেন।