নর্থ সাউথের নিখোঁজ ছাত্রের লাশ গজারিয়ায় উদ্ধার

July 24, 2018, 10:08 am নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

রাজধানীর নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের লাশ মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার ভোররাত থেকে নিখোঁজ থাকার পর গতকাল সকাল সাড়ে আটটায় তাকে উদ্ধার করা হয়। নিখোঁজ ছাত্রের নাম মো. সাইদুর রহমান ওরফে পায়েল (২১)। তিনি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ পঞ্চম সেমিস্টারের ছাত্র ছিলেন। বাড়ি চট্টগ্রাম নগরের হালিশহর এলাকার আই ব্লকে। পায়েলের মামা গোলাম সরওয়ার্দী বিপ্লব বলেন, শনিবার রাতে হানিফ পরিবহনের (নং ৯৬৮৭) বাসে করে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয় পায়েল।


এ সময় তার সঙ্গে ছিল বন্ধু আকিবুর রহমান আদর (২১)। সকালে পায়েলের মা কোহিনুর বেগম ছেলের মোবাইল নম্বরে
ফোন করলে পাশের সিটের থাকা তার বন্ধু আদর জানায়, পায়েল গাড়িতে নেই। পরে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ না করায় নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানায় নিখোঁজ দেখিয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন বলে জানান বিপ্লব। গোলাম সরওয়ার্দী বিপ্লব বলেন, পায়েলের বিষয়ে জানতে গাড়ির সুপারভাইজার জনিকে (৩০) ফোন করলে জানান, ‘চট্টগ্রামের একে খান সখিনা কাউন্টার থেকে রাত ১০টায় রওনা করেন তারা। ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ক্যাসেল রেস্টুরেন্টের কাছে যানজটে পড়ে গাড়ি। তখন পায়েল গাড়ি থেকে বের হয়। জ্যাম ছেড়ে রাস্তা ফাঁকা হলে গাড়ি দ্রুত ছেড়ে দেয়। ফলে সে গাড়িতে উঠতে পারেনি বলে জানায় সুপারভাইজার জনি। তার জন্য অপেক্ষা না করে গাড়ি ছেড়ে দেয়ায় সে গাড়িতে উঠতে পারেনি। এমনকি তার মোবাইলও গাড়িতে রয়ে যায় বলে জানান পায়েলের মামা।

গজারিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আসাদুজ্জামান তালুকদার জানান, সোমবার সকাল সাড়ে আটটায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বাপের চর সেতুর নিচে ফুলদী নদীতে ভাসমান অবস্থায় এক তরুণের মৃতদেহ পাওয়া যায়। মৃত যুবকের পকেটে একটি মানিব্যাগ ছিল। এতে লন্ড্রির রসিদ এবং জন্ম নিবন্ধন নম্বর ছিল। এগুলোর ভিত্তিতে নিহত যুবকের আত্মীয়ের ফোন নম্বর সংগ্রহ করে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। মৃত ব্যক্তির নাক ও মুখে রক্ত ছিল। আর গলার ডান পাশ ও পেটের দুই পাশে কালো দাগ ও ক্ষত রয়েছে। সুরতহাল করে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।