জাবালে নূরের সেই বাসের মালিক রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

 

   জাবালে নূর পরিবহনের যে বাসে পিষ্ট হয়ে শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে, তার মালিক শাহাদাত হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম নুরু নাহার ইয়াসমিন শুনানি শেষে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ক্যান্টনমেন্ট জোনাল টিমের ডিবি পুলিশের পরিদর্শক কাজী শরিফুল ইসলাম ওই আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

মামলাটিতে ওই গাড়ির চালক মো. মাসুম বিল্লাহ সাত দিনের রিমান্ডে রয়েছেন। এছাড়া মামলাটিতে গ্রেপ্তার মো. এনায়েত হোসেন, মো. সোহাগ আলী, মো. রিপন হোসেন এবং মো. জোবায়ের কারাগারে আছেন। আগামী ৬ আগস্ট তাদের রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য আছে।

 

গত রবিবার বিমানবন্দর সড়কে দুটি বাসের পাল্লাপাল্লি চলার সময় জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাসের নিচে চাপা পড়ে রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দুই শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিম ও আব্দুল করিম রাজীব মারা যায়।

 

আহত হয় এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র সোহেল রানা, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইমরান চৌধুরী, মেহেদী হাসান জিসান, রাহাত, সজিব, জয়ন্তি, প্রথম বর্ষের ছাত্রী রুবাইয়া, এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তৃপ্তাসহ আরও কয়েকজন।

দুর্ঘটনার পর সেদিন ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা তাৎক্ষণিকভাবে গাড়ি ভাঙচুর করে বিমানবন্দর সড়কে। পরদিন থেকে পুরো রাজধানীতে সড়কে নেমে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা, যা এখন অবধি চলমান আছে।

 

এ ঘটনায় ২৪ জুলাই রাতে ক্যান্টনমেন্ট থানায় নিহত মিমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম একটি মামলা করেন। মামলার পর গতকাল বুধবার জাবালে নূর পরিবহনের ওই বাসের মালিককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।