জাবালে নূরের চালক-সহকারী রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

রাজধানীর কুর্মিটোলায় বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় করা মামলায় জাবালে নূরের দুই বাসের চালক ও তাদের দুই সহকারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিন করে রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

 

সোমবার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলাম এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

যাদের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে তারা হলেন মো. এনায়েত হোসেন, মো. সোহাগ আলী, মো. রিপন হোসেন এবং মো. জোবায়ের।

 

এই চারজনকে রিমান্ডে নেয়ার জন্য গত ৩১ জুলাই আবেদন করেছিলেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ক্যান্টনমেন্ট থানার এসআই রিয়াদ আহমেদ। আবেদনে তাদের ১০ দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়। কিন্তু ওইদিন আবেদনের সঙ্গে মামলার কেস ডকেট (সিডি) না থাকায় বিচারক রিমান্ড শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

 

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, গত ২৯ জুলাই বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস আরেকটি বাসের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেপরোয়া গতিতে হোটেল র‌্যাডিসনের বিপরীত পাশে জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের সামনে বাসে ওঠার অপেক্ষায় থাকা শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ১৪/১৫ জন শিক্ষার্থীর উপর গাড়িটি উঠিয়ে দেয়।

 

এতে ওই কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম রাজীব মারা যায়।

 

এছাড়া এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র সোহেল রানা, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইমরান চৌধুরী, মেহেদী হাসান জিসান, রাহাত, সজিব, জয়ন্তি, প্রথম বর্ষের ছাত্রী রুবাইয়া, এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তৃপ্তাসহ আরও কয়েকজন আহত হন।

এ ঘটনায় নিহত মিমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে সেদিন রাতেই ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটিতে বাসের মালিক মো. শাহাদাত হোসেন ও চালক মো. মাসুম বিল্লাহ বর্তমানে রিমান্ডে আছেন।