জনতা ব্যাংকের তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলার প্রস্তুতি

August 28, 2018, 5:49 pm নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

 

   জাল সনদ দেখিয়ে ঋণ উত্তোলনের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে পটুয়াখালীর জনতা ব্যাংকের সাবেক তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল এ অনুমোদন দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।

 

অভিযুক্ত ব্যক্তিরা হলেন- জনতা ব্যাংকের পটুয়াখালীর নতুন বাজার শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক মো. গোলাম আজম (বর্তমানে সিনিয়র অফিসার, আঞ্চলিক কার্যালয় পটুয়াখালী),  মীর জালালউদ্দীন (দ্বিতীয় কর্মকর্তা) এবং একই শাখার সাবেক সিইও মো. নজরুল ইসলাম। জানা গেছে, অভিযুক্তরা  পরস্পর যোগসাজশে ভুয়া ব্যক্তিদের নামে জাল চাকরিজীবী প্রত্যয়নপত্র তৈরির মাধ্যমে ভুয়া ঋণ বিতরণ দেখিয়ে ২ কোটি ৩৫ লাখ ৪৭ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন। ২৪৪টি ঋণ ভুয়া ব্যক্তিদের নামে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে  ২০০৮ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত সময়ে  এই টাকা আত্মসাৎ করেন। জনতা ব্যাংকের বিভাগীয় তদন্তেও চাকরিজীবী ঋণ, ব্যাংকের বিভিন্ন হিসাবে ঋণ বিতরণে গরমিল এবং সিসি ঋণ বিতরণে বিভিন্ন  অনিয়ম ও আত্মসাতের বিষয়গুলো উদ্‌ঘাটিত হওয়ায় গোলাম আজমকে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে কর্তৃপক্ষ।  দুদক জানায়, দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারা এবং ১৯৪৭  সালের ২নং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শিগগিরই মামলা দায়ের করা হবে। মামলার অনুসন্ধান কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মানিক লাল দাস।।