সেন্টমার্টিনে রাতযাপন নিষিদ্ধ হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

দেশের একমাত্র প্রবালদ্বীপ সেন্টমার্টিনের পরিবেশ ও প্রতিবেশ রক্ষায় উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ লক্ষ্যে আগামী ১ মার্চ থেকে সেন্টমার্টিনে রাতযাপন নিষিদ্ধ হচ্ছে। দ্বীপ রক্ষায় গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে পর্যটকরা দিনের বেলায় দ্বীপটি ঘুরে দেখতে পারবেন।

আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি জানায়, সেন্টমার্টিন দ্বীপের জীববৈচিত্র্য টিকিয়ে রাখতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া ছেঁড়া দ্বীপ ও গলাচিপা অংশে পর্যটকদের প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। গত ২৩ সেপ্টেম্বর এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বন, পরিবেশ ও  জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সেন্টমার্টিনের জীববৈচিত্র্য ধ্বংসের চিত্র তুলে ধরে পরিবেশ অধিদফতরের দেয়া প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কমিটি এসব সিদ্ধান্ত নেয়।

বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদের সভাপতিত্বে উচ্চ পর্যায়ের এ বৈঠকে নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, পরিবেশ, বন ও  জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল ইসলাম, চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় নেওয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্তের কপি রোববার বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে পাঠানো হয়। আগামী ছয় মাস থেকে এক বছরের মধ্যে এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। এছাড়া স্বল্প মেয়াদী ও দীর্ঘ মেয়াদী বিভিন্ন সিদ্ধান্তও নেওয়া হয় বৈঠকে।

সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সেন্টমার্টিনে নতুন করে কোনো রাস্তা নির্মাণ করা যাবে না; নাফ নদী, দ্বীপে যাওয়া-আসার পথে এবং মূল দ্বীপে কোনো প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলা যাবে না; দ্বীপটির সৈকতে মোটর সাইকেল চালানো যাবে না; দ্বীপে রাতের আধারে কোনো আলো জ্বালানো যাবে না; সেন্টমার্টিন রক্ষায় কোন সংস্থার কী করণীয় তা নির্ধারণ করে আগামী এক মাসের মধ্যে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হবে।