পরিবেশের প্রতিচ্ছবি রোদচশমায়

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম


অপ্রয়োজনীয় উপকরণ যখন আমরা আবর্জনা হিসেবে ফেলে দিই আর তা যদি হয় প্লাস্টিকের মতো দূষণকারী উপাদান তবে তা মোটেও পরিবেশের পক্ষে সহনীয় নয়। তাই পরিবেশের কথা চিন্তা করেই বিশেষ কিছু ব্র্যান্ড নিয়ে এসেছে এমন কয়েকটি সানগ্লাস, যা ফেলনা বা অকেজো উপকরণ থেকে তৈরি

রোদ থেকে চোখকে সুরক্ষা দিতে চাইলে রোদচশমার বিকল্প কীইবা আছে। কিন্তু আপনার চোখকে সুরক্ষিত রাখতে প্রস্তুত যে সানগ্লাস বা রোদচশমা, তা কি পরিবেশকে সুরক্ষিত রাখতে প্রস্তুত ঠিক ততটাই? ভাবনায় পড়ে গেলেন নিশ্চয়ই? ভাবনার দোলাচল থেকে বেরিয়ে আসতে আপনার জন্যই বিশ্বখ্যাত কিছু ব্র্যান্ড তৈরি করছে পরিবেশবান্ধব রোদচশমা। জেনে নিন সেসবেরই খবরাখবর—

 প্রুফ আইওয়্যার

হাতে তৈরি যেকোনো জিনিসই বলা যায় অমূল্য। কেননা সেখানে শিল্পীর হাতের যত্ন যেমন থাকে, তেমনি পরিবেশের জন্যও শুভবার্তা বয়ে নিয়ে আসে। প্রুফ আইওয়্যারের ক্ষেত্রে এ কথা পুরোপুরিই খাটে। শুধু পরিবেশ ভাবনা মাথায় রেখে ব্র্যান্ডটি নিজেদের পসরা সাজিয়েছে হস্তনির্মিত এবং পরিবেশবান্ধব উপাদানে তৈরি রোদচশমা দিয়ে। দ্রুত বেড়ে ওঠা গাছের কাঠ দিয়ে তৈরি হয়েছে চশমার ফ্রেম কিংবা কখনো বাঁশের মতো দ্রুতবর্ধনশীল উপাদান গ্রহণ করা হয়েছে। সবমিলিয়ে বলা চলে, পরিবেশ থেকে এমন সব উপাদানই বেছে নেয়া হয়েছে, যা মূলত ফেলনা, অকেজো কিংবা কোনোভাবেই পরিবেশের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায় না। এসব গুণাগুণ ছাড়াও ওজনে হালকা, ফ্যাশনেবল ও পরিবেশবান্ধব— এ তিনের সংযুক্তিতে বিশেষ হয়ে উঠেছে রোদচশমাগুলো।

 ডিক মবি

আমস্টারডামভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এটি। তবে চমত্কার ফ্যাশনভাবনা আর উপস্থাপনশৈলী ইতালিভিত্তিক যেকোনো ব্র্যান্ডের মতোই। বলে রাখা ভালো, রোদচশমার কারিগর হিসেবে ইতালির প্রশংসা রয়েছে। সেদিক থেকে ডিক মবিও প্রশংসা পেতে পারে। তবে এসব কিছু বাদ দিলেও ব্র্যান্ডটির সবচেয়ে ভালো বিষয় হচ্ছে, এর প্রতিটি রোদচশমাই কিন্তু তৈরি হয়েছে পরিবেশবান্ধব উপকরণ দিয়ে। বায়োপ্লাস্টিক দিয়ে তৈরি হয়েছে চশমাগুলো। মজার বিষয় হচ্ছে, আমস্টারডামভিত্তিক হলেও এ চশমাগুলো কিন্তু তৈরি হচ্ছে ইতালির কারিগরদের হাতেই।

 ইকো বাই মডো

কাঠের ফ্রেম, বায়োপ্লাস্টিক, পুনরায় ব্যবহারযোগ্য উপাদান সহযোগে তৈরি রোদচশমাগুলো শুধু ফ্যাশনের কথাই বলছে না, বরং পরিবেশের কথাও বলছে বেশ ভালোভাবে। এখানেই শেষ না, নিউইয়র্কভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটির চমত্কার একটি উদ্যোগ হচ্ছে, প্রতিটি ফ্রেমের জন্য একটি করে গাছ লাগানো। এ পর্যন্ত তারা ১ দশমিক ৪ মিলিয়ন গাছ লাগিয়েছে। অর্থাৎ শুধু পরিবেশবান্ধব রোদচশমা ব্যবহারে উদ্বুদ্ধই করছে না ইকো বাই মডো, সঙ্গে গাছ লাগানোর বিষয়েও সচেতন করে তুলছে।