তারা আমাকে এমপি-মন্ত্রী হতে দেবে না: হিরো আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় ভীষণ কষ্ট পেয়েছেন আলোচিত অভিনেতা হিরো আলম। বলেছেন-তার মনোনয়নপত্র বাতিলে নিশ্চয়ই কোনো ষড়যন্ত্র আছে। এই ষড়যন্ত্রকারীরাই তাকে সংসদ সদস্য-মন্ত্রী হতে দেবে না।

জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন হিরো আলম। মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

রোববার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বাতিলের ঘোষণা দেন।

হিরো আলম গতকাল সোমবার নির্বাচন কমিশনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেছেন।

আপিল শেষে হিরো আলম গণমাধ্যমকে বলেন, ষড়যন্ত্র করে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। মনোনয়নপত্র বাতিলের পেছনে কোনো কারণ নেই।

ষড়যন্ত্র কী-এমন প্রশ্নে হিরো আলম সরাসরি কোনো উত্তর না দিয়ে বলেন, এ দেশের রাজারা চান না প্রজারা রাজা হোক। এমপি-মন্ত্রীরা চান না আমরা পাবলিক এমপি-মন্ত্রী হই। তারা সবসময় চান তাদের বউ, ছেলেমেয়ে ও উত্তরাধিকাররা এমপি-মন্ত্রী হোক।

তিনি বলেন, এ ষড়যন্ত্রকারীরা আমাকে এমপি হতে দেবে না। এ জন্য ষড়যন্ত্র করে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

হিরো আলমের মনোনয়নপত্র বাতিলের পক্ষে যুক্তি দিতে গিয়ে রোববার নির্বাচন কর্মকর্তা আশরাফ হোসেন বলেন, ‘কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মনোনয়ন নিলে তাকে তার নির্বাচনী এলাকার মোট ভোটারের ১ শতাংশের স্বাক্ষর লাগে। তবে হিরো আলম ভোটারদের স্বাক্ষরসংবলিত যে তালিকা জমা দিয়েছেন, তা যাচাই করে দেখা গেছে-তিনি ভুয়া ভোটারদের তালিকা জমা দিয়েছেন।’

এ বিষয়ে হিরো আলম বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকায় মোট ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ১২ হাজার ৮৬। সে অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার জন্য তিন হাজার ১২১ জনের স্বাক্ষরই যথেষ্ট। আমি দিয়েছি তিন হাজার ৫০০ জনের স্বাক্ষর । কোনো অবস্থাতেই আমার মনোনয়নপত্র বাতিল হতে পারে না।

রাগে ও ক্ষোভে অভিমানী হিরো আলম বলেন, আমার প্রতি অন্যায় করা হয়েছে। আমার ক্ষমতা নেই বলেই মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

মনোনয়ন ফিরে না পেলে কী করবেন-এমন প্রশ্নে হিরো আলম বলেন, এমনটি হলে আমি হিরো আলম বসে থাকব না। আমার ব্যক্তি ইমেজ কাজে লাগিয়ে যে কোনো একটি পক্ষের হয়ে কাজ করব।

কোন পক্ষকে সমর্থন দেবেন-এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কোন পক্ষে কাজ করব তা এখনই বলব না। সময় হলে সব জানতে পারবেন।

প্রার্থী হওয়ার লড়াই চালিয়ে যাবেন কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম সোমবার বলেন, আমি জিরো থেকে হিরো হয়েছি। জনগণ আমাকে জিরো থেকে হিরো বানিয়েছে। জিরো থেকে এতদূর এসেছি। আমি অবশ্যই লড়াই চালিয়ে যাব। শেষ পর্যন্ত আমি বীরের মতো লড়াই করে যাব। প্রার্থিতা ফিরে পাই আর না পাই, কারও কাছে মাথানত করব না।

ইউটিউবে বিচিত্র অভিনয়, গান আর নাচ দেখিয়ে দেশব্যাপী আলোচনায় আসেন হিরো আলম। তার প্রকৃত নাম আশরাফুল আলম।