ফের সাজা পেলেন লালু প্রসাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে চতুর্থবারের মতো কারাদণ্ডের রায় পেলেন ভারতের বিহার রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তথা আরজেডি পার্টির প্রধান লালু প্রসাদ যাদব। এবার তাকে ১৪ বছর কারাদণ্ডের রায় দিলেন আদালত।

আজ শনিবার বিশেষ সিবিআই আদালতের বিচারক শিবপাল সিংহ লালু প্রসাদের বিরুদ্ধে এ রায় ঘোষণা করেন।

ভারতীয় দণ্ডবিধির দুর্নীতি রোধ আইন অনুযায়ী বিহারের দুমকা কোষাগার থেকে পশুখাদ্যের বাজেট থেকে বিশাল অংকের টাকা আত্মসাতের দায়ে লালু প্রসাদের বিরুদ্ধে দুই ধারায় ৭ বছর করে মোট ১৪ বছরের কারাদণ্ডের রায় দেওয়া হয়। একই সঙ্গে দুটি ধারায় ৩০  লাখ রুপি করে মোট ৬০ লাখ রুপি জরিমানা ধার্য করা হয়েছে।

গত ১৯ মার্চ এই মামলায় লালু প্রসাদকে দোষী সাব্যস্ত করে রাঁচির সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত।

তবে একই পশুখাদ্য কেলেংকারি মামলায় খালাস পেয়েছেন বিহারের অপর সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জগন্নাথ মিশ্র। তবে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন লালু প্রসাদের আইনজীবী প্রভাত।

এর আগে পশুখাদ্য কেলেংকারিতে লালু প্রসাদ যাদব তিনবার সাজার রায় পান। তাঁকে প্রথম মামলায় পাঁচ বছরের জেল ও ২৫ লাখ রুপি জরিমানা, দ্বিতীয় মামলায় সাড়ে তিন বছরের জেল ও পাঁচ লাখ রুপি জরিমানা, তৃতীয় মামলায় পাঁচ বছরের জেল ও পাঁচ লাখ রুপি জরিমানা করা হয়।

নব্বইয়ের দশকে দুমকা ট্রেজারি থেকে ৩ কোটি ১৩ লাখ রুপি জালিয়াতির অভিযোগে লালু প্রসাদ যাদবের বিরুদ্ধে এই চতুর্থ মামলাটি হয়। বর্তমানে তিনি দ্বিতীয় পশুখাদ্য মামলায় জেল খাটছেন। প্রথম মামলায় লালু প্রসাদ সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিন পান। কিন্তু তাঁকে সংসদ থেকে বহিষ্কৃত হতে হয়। সেই সঙ্গে ১১ বছর নির্বাচনে অংশগ্রহণের অধিকারও তিনি হারান।