দেশের চলতি হিসাবে ঘাটতি কমছে

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

চলতি অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) বহির্বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ঘাটতি গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে বেশি ছিল। অক্টোবরে এসে পরিস্থিতি পাল্টাতে শুরু করে। নভেম্বরে পরিস্থিতির আরও উন্নতি হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত পাঁচ মাসে যে পরিমাণ বাণিজ্য ঘাটতি হয়েছে, তা আগের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ১শ' কোটি ডলার কম। আর এর প্রভাবে চলতি হিসাবের ঘাটতিও অনেক কমেছে। তবে বিদেশি বিনিয়োগ ও ঋণ প্রবাহে তেমন গতি না থাকায় সার্বিক লেনদেনের ভারসাম্যে ঘাটতি আগের চেয়ে বেড়ে গেছে। 

বাংলাদেশ ব্যাংক জুলাই-নভেম্বর পর্যন্ত বৈদেশিক লেনদেনের ভারসাম্যের (ব্যালেন্স অব পেমেন্ট) পরিসংখ্যান সম্প্রতি প্রকাশ করেছে। এতে দেখা যায়, এ সময়ে পণ্য বাণিজ্যে ঘাটতি হয়েছে ৬৬৫ কোটি ৯০ লাখ ডলার। গত অর্থবছরের একই সময়ে যা ছিল ৭৬০ কোটি ৭০ লাখ ডলার। রফতানিতে আগের চেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি এবং আমদানিতে কম প্রবৃদ্ধির কারণে বাণিজ্য ঘাটতি কমেছে। এ সময়ে রফতানি আয় এসেছে ১ হাজার ৬৭৭ কোটি ডলার। রফতানি বেড়েছে ১৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ। আর আমদানি ব্যয় হয়েছে ২ হাজার ৩৪৩ কোটি ডলার। আমদানি বেড়েছে মাত্র ৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ।