ইতালির অভিবাসন আইন মানবতাবিরোধী : ভ্যাটিকান মুখপাত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

ইতালির চলমান অভিবাসী ও নিরাপত্তা আইনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশিসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অভিবাসীরা যখন সংকটাপন্ন মুহূর্ত পার করছে, ঠিক তখন বিষয়টি নিয়ে এই প্রথম মুখ খুললেন ক্যাথলিকদের তীর্থদেশ ভ্যাটিকানের এক মুখপাত্র।

ইতালির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাত্তেও সালভিনির নিরাপত্তা আইনকে মানবতাবিরোধী বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিপদগ্রস্ত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসা কোনো অপরাধ নয়, তাই ইতালির এমন অভিবাসন বিরোধী আইনকে ভ্যাটিকান মানবতাবিরোধী বলে মনে করে। স্থানীয় এক সংবাদ মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই মুখপাত্র ভ্যাটিকান নিয়ন্ত্রিত সব গির্জা আশ্রমকে নির্দেশ দিয়েছেন, মানবতার সাহায্যে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে। পাশাপাশি ইতালি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান, গির্জার মানবিক কর্মকে আইনের বিরুদ্ধে বিবেচনা না করতে।

সম্প্রতি ধর্মীয় এক অনুষ্ঠানের ভাষণে পোপ ফ্রান্সিসও মানবতার সেবায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এদিকে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এক ভিডিও বার্তায় বলেছেন, অনেক সাংবাদিক তাকে প্রশ্ন করেছেন, কতজন অনুপ্রবেশকারী অভিবাসীকে ইতালিতে থাকার অনুমতি দেয়া যেতে পারে। উত্তরে তিনি শূন্য বলে জানিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, ইতালি আর কোনো অভিবাসীকে জায়গা দিতে রাজি নয়। মায়াকান্না না করে জার্মান এবং হল্যান্ডের উচিত তাদের দেশের দরজা খুলে দেয়া।

উল্লেখ্য, ইতালিতে অভিবাসী আইন কার্যকর ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে গত ২৪ সেপ্টেম্বর। পরে রাষ্ট্রপতি সেরজো মাতারেল্লা সই দেয়ার পর তা কার্যকর করা হয়।

আইনটি অনুমোদন হওয়ায় বিভিন্ন দেশের অভিবাসীরা চরম বিপাকে পড়তে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ আইনে সন্ত্রাসবাদ, যৌন হয়রানি, মানবপাচার ও মাদক চক্রের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে। এ ছাড়া যেকোন ছোট অপরাধের কারণে বৈধতা হারাতে পারেন অভিবাসীরা।