মনীষার ক্যানসার জয়ের গল্প

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

‘আমি মনে করি, আমাদের জীবনে যেকোনো পরিস্থিতি কোনো না কোনো শিক্ষা দেয়। বিশ্বাস করুন, আমি ক্যানসারের প্রতি কৃতজ্ঞ, ক্যানসার আমাকে জীবনের মূল্য শিখিয়েছে। যুদ্ধ করতে শিখিয়েছে। মৃত্যুর জন্য আমি কখনোই প্রস্তুত ছিলাম না।’ গত ১০ নভেম্বর দুপুরে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনের মঞ্চে বলেছিলেন মনীষা কৈরালা। ঢাকা লিট ফেস্টে এসেছিলেন তিনি। উৎসবের শেষ দিন ‘হিলড’ শীর্ষক সেশনে নিজের লেখা বই ‘হিলড’ থেকে কয়েকটি লাইন দর্শকদের পড়ে শোনান। নিজের জীবনে বয়ে যাওয়া ঝড়ের দিনগুলোর কথা বলেছেন এখানে। রোগ-শোকের ভয়াবহ সেসব দিন। তবে একটিবারের জন্য ভেঙে পড়েননি। প্রায় এক ঘণ্টার আলোচনায় কথা বলতে বলতে থেমে যাননি, বরং তাঁর জীবনের গল্প শুনে মিলনায়তনে উপস্থিত অনেকের চোখ সিক্ত হয়েছে। পিনপতন নীরবতায় মধ্যেও একজন দর্শক ফিসফিস করে বলে ওঠেন, ‘মনীষা সত্যিকারের যোদ্ধা!’

অনুষ্ঠানের শুরুতে ‘নেপালিকন্যা’ মনীষা কৈরালা নিজের বইয়ের কয়েকটি অংশ পড়েন, ‘১০ ডিসেম্বর ২০১২। মৃত্যু আমাকে ডাক দেয়। কিন্তু আমি মরতে চাইনি, বাঁচতে চাই এই সুন্দর পৃথিবীতে। আমার আকাশ মেঘে ঢেকে যাচ্ছে। না, হেরে গেলে চলবে না। একসময় জানতে পারি, আমার বেঁচে থাকার সম্ভাবনা ৪৪ শতাংশ। কিন্তু এটাও সত্যি, ৫৬ শতাংশ মৃত্যুর ঝুঁকি!’ এ অনুষ্ঠানেই তিনি জানিয়েছিলেন, জানুয়ারি মাসে মুম্বাইয়ে বইটি প্রকাশ করা হবে। আত্মজীবনী নিয়ে তিনি বলেন, ‘নিজের জীবনের নানা কথা, অভিজ্ঞতা, সফলতা আর ব্যর্থতার কথা এই বইয়ে তুলে ধরেছি। আমার দাম্পত্য জীবনের ব্যর্থতার কথাও আছে। স্ত্রী হিসেবে আমি কতটা ব্যর্থ, সে কথা জানবে পাঠক।’

এবার ক্যানসারজয়ী এই যোদ্ধার গল্প নিয়ে এসেছে ‘হিলড: হাউ ক্যানসার গেভ মি আ নিউ লাইফ’। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে মুম্বাইয়ে হোটেল দ্য তাজ ল্যান্ডস এন্ডে বইটির প্রকাশনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। নেপালি মেয়ে বলিউড তারকা মনীষা কৈরালার ক্যানসার জয়ের গল্প নিয়ে বইয়ের প্রকাশনা, আর সেখানে বলিউডের অন্য তারকারা থাকবেন না, তাই কি হয়! মনীষা কৈরালাকে শুভেচ্ছা জানাতে এসেছিলেন অনেকে। তাঁদের মধ্যে ছিলেন রেখা, অনুপম খের, জ্যাকিশ্রফ, মহেশ ভাট, গুলশান গ্রোভার, ভাগ্যশ্রী, ইমতিয়াজ আলী, দিয়া মির্জা, কেতন মেহতা, শেখর কাপুর প্রমুখ। ছিলেন মনীষা কৈরালার অনেক বন্ধু।

মনীষা কৈরালা ২০১২ সালে ওভারিয়ান ক্যানসারে আক্রান্ত হন। দীর্ঘ চিকিৎসার পর এখন তিনি ক্যানসারমুক্ত। প্রকাশনা অনুষ্ঠানে মনীষা কৈরালা বলেন, ‘ওই সময়টা ফিরে দেখা খুব কষ্টের। সবকিছু এখনো নিখুঁতভাবে মনে আছে। মাঝেমধ্যে ভাবতাম, বইটি হয়তো শেষ করতে পারব না। আবার মনে হতো, বইটি লেখা ঠিক হচ্ছে না।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজের গল্পটা বলতে চেয়েছি। এর মধ্য দিয়ে নিজেকে আর ক্যানসারে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মনে সাহস জোগাতে চেয়েছি।’

এরপরের রাতেই ‘হিলড: হাউ ক্যানসার গেভ মি আ নিউ লাইফ’ বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের টুইটারে ধন্যবাদ জানান মনীষা কৈরালা।

‘হিলড: হাউ ক্যানসার গেভ মি আ নিউ লাইফ’ বইটি লিখতে মনীষা কৈরালাকে সহযোগিতা করেছেন নীলম কৌর। বইটি প্রকাশ করেছে পেঙ্গুইন র‍্যান্ডম হাউস ইন্ডিয়া।