প্রশ্ন ফাঁস রোধে তীক্ষ্ণ গোয়েন্দা নজরদারি রয়েছে: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

এসএসসি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস রোধে তীক্ষ্ণ গোয়েন্দা নজরদারি রয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

শনিবার এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিনে ঢাকার আশকোনার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় একথা জানান তিনি।

দীপু মনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা নিশ্চয়ই চাই একেবারে প্রশ্নফাঁসমুক্ত নকলমুক্ত পরিবেশে আমাদের পরীক্ষা হোক, সেটিই তো সুষ্ঠু পরীক্ষা। এখন পর্যন্ত খুব ভালোভাবেই সেটা হচ্ছে। কোথায় কোনো ধরনের নেতিবাচক কোনো খবর আমরা পাইনি।”

গত কয়েক বছর আগে পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের একের পর এক ঘটনার পর সরকার তৎপরতা বাড়ায়। এবার এসএসসি পরীক্ষা শুরুর ঠিক আগেই প্রশ্ন ফাঁসকারী দুটি চক্রকে আটকের খবর জানায় পুলিশ।

প্রশ্ন ফাঁস রোধে গৃহীত পদক্ষেপ জোরদারের কথা জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, “গত বছর থেকেই কিন্তু আমাদের এই প্রক্রিয়াটি শুরু হয়েছে। গত বছরও কোনো ধরনের প্রশ্ন ফাঁস হয়নি। এ বছর সেই প্রক্রিয়াটি আরও জোরদার করা হয়েছে।

“এক্ষেত্রে কঠোর তীক্ষ্ণ গোয়েন্দা নজরদারি চলছে এবং ইতোমধ্যে বেশ কিছু গ্রেপ্তার হয়েছে, যাদের বিরদ্ধে অপচেষ্টার অভিযোগ ছিল।”

সারাদেশে কেউ এ ধরনের অপচেষ্টার সঙ্গে যুক্ত হবেন না বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

প্রশ্ন ফাঁসের অপচেষ্টার সাথে কেউ যুক্ত হলে সে তথ্য পাওয়ার সাথে সাথে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ার করেন দীপুমনি।

প্রশ্ন ফাঁস ও নকল রোধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সব বাহিনী ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় তৎপর রয়েছে বলে জানান তিনি।

দীপু মনি বলেন, “গণমাধ্যমেরও এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রয়েছে। অভিভাবক, শিক্ষক, পরীক্ষার্থী কেউ এ ধরনের কোনো প্রচেষ্টার সাথে যুক্ত হবেন না। আর কোনো চাহিদা না থাকলে কেউ প্রশ্ন ফাঁসের সাথে যুক্ত হবেন না। কাজেই দায়িত্ব দুই দিকেই কিন্তু আছে।”

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুটি পরীক্ষা কক্ষ পরিদর্শন করেন শিক্ষামন্ত্রী। তার সঙ্গে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলও ছিলেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন  ও কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর এসময় উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী জানান, পরীক্ষার প্রশ্নপত্র দেওয়ার আগেই তারা কক্ষ পরিদর্শনে গিয়েছিলেন।

“এ কেন্দ্রটিতে আমরা এসেছিলাম দেখতে, আমরা দেখলাম যে, যেভাবে নির্দেশনা আছে, ঠিক সেভাবে পরীক্ষার ঠিক আগে প্রশ্নপত্রসহ বাকি যে প্রক্রিয়া অনুসরণ করার কথা, তা অনুসরণ করা হচ্ছে।”

সারা দেশে শন্তিপূর্ণ পরিবেশে সুষ্ঠুভাবে সকল পরীক্ষাগুলো সম্পন্ন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে সকল অভিভাবক শিক্ষকসহ সকলের সহযোগিতা চান মন্ত্রী।