ভারতের সব বিমানবন্দরে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি পাওয়ার পর দেশের সব বিমানবন্দরে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে ভারত। প্রতিটি বিমানবন্দরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বিমানবন্দরে প্রবেশ করা সব গাড়ির ওপর বাড়তি নজর রাখা হচ্ছে৷

সম্প্রতি মুম্বাইয়ের এয়ার ইন্ডিয়ার কন্ট্রোল রুমে একটি উড়ো ফোন আসে৷ সেখানে হুমকি দিয়ে বলা হয় কান্দাহারের মতো ফের ছিনতাই করা হবে ভারতীয় কোনো বিমান৷ এমন হুমকির পরই নড়েচড়ে বসেছে ভারতের নিরাপত্তা দপ্তর।

বিষয়টি সম্পর্কে জ্ঞাত এক ব্যক্তি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রতিটি বিমানবন্দরের প্রবেশ ও বাইরের পথে অতিরিক্ত নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করতে বলা হয়েছে৷ বিমানবন্দর সংলগ্ন রাস্তায় নিরাপত্তা বাড়াতে বলা হয়েছে৷ কয়েকটি এয়ারলাইন্সের বিমানগুলিতে বিশেষ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে৷ বিশেষ করে পাকিস্তানের আকাশ ছুঁয়ে যে বিমানগুলি গাল্ফ যায় সেই বিমানগুলিকে বাড়তি সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে৷

ভারতের অধিকাংশ বিমানবন্দরে নিরাপত্তা দেয় সিআইএসএফ৷ তাদের তরফে বিমানবন্দরগুলিতে নিরাপত্তা বাড়ানোর কথা স্বীকার করা হয়েছে। এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিমানবন্দরে প্রবেশ পথে স্পিড ব্রেকার বসানো হয়েছে৷ প্রতিটি চেক পয়েন্টে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে৷ এছাড়া এয়ারলাইন্সগুলিকে অনুরোধ করা হয়েছে সেকেন্ডারি ল্যাডার পয়েন্ট চেকিং ব্যবস্থা শুরু করার৷ যাত্রীদের নির্ধারিত সময়ের চেয়ে একটু আগে বিমানবন্দরে আসার আর্জি জানানো হয়েছে৷ কেননা এতগুলি নিরাপত্তার স্তর পেরোতে সময় লাগবে৷ এছাড়া সুইপিং স্কোয়াড নামানো হয়েছে৷ যাদের কাজ হল সন্দেহভাজন যাত্রীদের চিহ্নিত করা৷ সব বিমানবন্দরে এদের নামানো হয়েছে৷ এছাড়া ডগ স্কোয়াড, বম্ব স্কোয়াডকে তৈরি থাকতে বলা হয়েছে৷

সম্প্রতি ভারত নিয়ন্ত্রীত কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে আধা সামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে বোমার হামলার ঘটনায় ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরস্পর পরস্পরকে দোষারোপ এবং হুমকি পাল্টা হুমকি দিচ্ছে। এমন অবস্থায় ওই উড়ো ফোনকেও সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে ভারত।