কাশ্মীর সীমান্তে ফের পাক-ভারত গোলাগুলি

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

‘শান্তির বার্তা’ দিয়ে আটক ভারতীয় বৈমানিক উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ফিরিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। কিন্তু এরপরই কাশ্মীর সীমান্তে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর দুই দেশের সেনাদের মধ্যে আবারও শুরু হয়েছে গোলাগুলি।


একে অপরের সীমান্ত চৌকি ও গ্রামের দিকে টার্গেট করে গুলি ছুড়েছে সেনারা। এতে দুই পাক সেনাসহ নিহত হয়েছেন ৮ জন। জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার নিয়ন্ত্রণ রেখায় শুক্রবার রাতে শুরু হয়ে শনিবার সকাল পর্যন্ত অব্যাহত থাকে। এতে রুবানা কসার (২৪) নামে এক মা, তার দুই শিশু সন্তানসহ চারজন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় সেনাসূত্র। অন্যদিকে নিজেদের দুই সেনা ও দুই বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পাক সেনা।

এদিকে শনিবার পাইলট অভিনন্দনের সঙ্গে হাসপাতালে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। হাসপাতালের কক্ষে বসেই কথা বলেন তারা। পাইলট অভিনন্দন বর্তমানের প্রতি ইঙ্গিত করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, এখন থেকে ‘অভিনন্দন’ শব্দটার মানেই বদলে যাবে। খবর আলজাজিরা ও এপির।
গত সপ্তাহে নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে পাকিস্তানে ভারতের বিমান হামলার পর আট দিন ধরে কাশ্মীরের পুঞ্চ এবং রাজৌরি জেলার নিয়ন্ত্রণ রেখায় প্রতিবেশী দুই দেশের সেনাদের মধ্যে গোলাগুলি চলছে। এতে এ পর্যন্ত বহু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। নিয়ন্ত্রণ রেখার পাঁচ কিলোমিটারের মধ্যে অবস্থিত সব স্কুল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। গোলাগুলির ঘটনায় সবচেয়ে বিপদে আছেন কাশ্মীরিরা। ভিটেমাটি ছেড়ে আশ্রয়শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন কাশ্মীর সীমান্তের অনেকেই। বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছেন আজাদ কাশ্মীরের কয়েক হাজার অধিবাসী। অনেকেই আবার আশ্রয় নিয়েছেন বাঙ্কারে।

উত্তেজনা পরিস্থিতির মধ্যেই শুক্রবার ওয়াঘা-অটারি সীমান্ত দিয়ে রাত ৯টায় অভিনন্দনকে দেশে ফিরিয়ে দেয় পাকিস্তান। নিরাপত্তার ঘেরাটোপে এরপর তাকে সোজা নিয়ে যাওয়া হয় অমৃতসর বিমানবন্দরে। রাত তখন সাড়ে ১০টা। সেখান থেকে বিশেষ বিমানে করে দিল্লির পালম বিমানঘাঁটিতে। পালম বিমানঘাঁটি থেকে নিয়ে যাওয়া হয় নয়াদিল্লির সুব্রত পার্কের ‘এয়ারফোর্স সেন্ট্রাল মেডিকেল এসটাব্লিশমেন্ট’ হাসপাতালে। বিমানবাহিনীর ওই হাসপাতালে রাতেই প্রথামিক মেডিকেল চেকআপ হয় অভিনন্দনের। পরিবারের সঙ্গেও দেখা হয়।

সকালের নাশতার পর ফের একপ্রস্থ মেডিকেল চেকআপ হয় তার। এরপর তার সঙ্গে দেখা করতে কক্ষে যান প্রতিরক্ষামন্ত্রী সীতারমণ। সাক্ষাৎকালে অভিনন্দনকে সীতারমণ বলেন, পুরো দেশ তার সাহস ও প্রত্যয়ের জন্য গর্বিত।’ পিটিআই জানিয়েছে, পাকিস্তানে প্রায় ৬০ ঘণ্টা বন্দিত্বের পুরো ঘটনা প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে শোনান অভিনন্দন। গণমাধ্যমে সাক্ষাতের একটি ছবিও প্রকাশিত হয়েছে। ছবিতে হাসপাতালের ওয়ার্ডে বসেই তার সঙ্গে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে সীতারমণকে।

দ্য হিন্দু জানায়, অভিনন্দন দেশে ফেরার পর জনসমক্ষে দেয়া নিজের প্রথম ভাষণে শনিবার পাইলটের কথা উল্লেখ করেন মোদি। আবাসন সম্পর্কিত ‘গ্লোবাল হাউজিং টেকনোলজি চ্যালেঞ্জের’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতীয় ও বিদেশি অতিথিদের মোদি বলেন, ‘ভারত যা-ই করুক, বিশ্ব তার প্রতি মনোযোগ দেবে। অভিধানের শব্দের অর্থ বদলে দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে এই দেশের। একসময় ‘অভিনন্দন’ শব্দটার ইংরেজি অর্থ ছিল ‘কংগ্র্যাচুলেশনস’। এখন ‘অভিনন্দন’ শব্দটার মানে বদলে যাবে। এই দেশের এই শক্তি রয়েছে।

এদিকে প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে সামরিক উত্তেজনার কারণে বন্ধ ঘোষণা করা পাকিস্তানের বিমানবন্দরগুলো পুনরায় খুলতে শুরু করেছে। শুক্রবার দেশটির করাচি, ইসলামাবাদ, পেশওয়ার এবং কোয়েটা বিমানবন্দর আংশিকভাবে খুলে দেয়া হয় এবং কয়েকটি উড়োজাহাজ চলাচল করে। বাণিজ্যিক উড়োজাহাজ চলাচলের জন্য সোমবার নাগাদ সব বিমানবন্দর পুরোপুরি খুলে দেয়া হবে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।

সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র বলেন, স্থানীয় সময় সোমবার দ্পুুর ১টা থেকে পাকিস্তানের আকাশসীমা সব ধরনের বাণিজ্যিক ফ্লাইটের জন্য খুলে দেয়া হবে। পাকিস্তানের বিমানবন্দর খুলে দেয়ার ঘোষণা স্বাভাবিকভাবেই পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে উত্তেজনা কমে আসার ইঙ্গিত দিচ্ছে।