অসাধারণ চিকিৎসা দিয়েছেন বাংলাদেশি চিকিৎসকরা: প্রধানমন্ত্রীকে ডা. শেঠী

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

ভারতের বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠী সোমবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে চিকিৎসা দেয়া বাংলাদেশি চিকিৎসকদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

শেঠী বলেন, বাংলাদেশের চিকিৎসকরা অসাধারণ চিকিৎসা দিয়েছেন। এর চেয়ে ভালো চিকিৎসা আপনি এমনকি উন্নত দেশগুলোতেও আশা করতে পারেন না।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই বৈঠক শেষে ডা. শেঠীকে উদ্ধৃত করে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফকালে এ কথা বলেন।

শেঠী সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কেও প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন।

তিনি উন্নত চিকিৎসার জন্য মন্ত্রীকে বিদেশে পাঠানোর পরামর্শ দিয়ে বলেন, এমন একজন খ্যাতনামা ব্যক্তির চিকিৎসা করতে স্থানীয় চিকিৎসকদের অনেক চাপের মধ্য দিয়ে কাজ করতে হয়।

প্রধানমন্ত্রী সেতুমন্ত্রীর চিকিৎসার জন্য দ্রুত সাড়া দিয়ে বাংলাদেশে আসা ডা. শেঠীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার ব্যাপারে আপনার মতামত শুনতে আমি উদগ্রীব ছিলাম। এর জবাবে শেঠী বলেন, আপনি যখনই ডাকবেন আমি বাংলাদেশে আসব। প্রধানমন্ত্রী শেঠির সঙ্গে দেশের চিকিৎসাসেবা সম্পর্কে আলোচনা করেন। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, চিকিৎসাবিদ্যার শিক্ষার্থীরা যাতে স্নাতকোত্তর ও গবেষণার বিষয় এখানে সম্পন্ন করতে পারে এজন্য দেশে প্রথম এ ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা হয়।

চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতেও এ ধরনের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। ভারতের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রভূত উন্নতির ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, বিগত কয়েক বছরে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের উল্লেখযোগ্য আর্থ-সামাজিক উন্নতি হয়েছে। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। ড. শেঠি ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তার পরামর্শে অসুস্থ মন্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য এয়ারবাসে সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়।

সেতুমন্ত্রীকে পরীক্ষার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে শেঠি এক ব্রিফিংয়ে বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের রক্তচাপ ভালোর দিকে এবং তার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। হৃদরোগে আক্রান্ত হলে সেতুমন্ত্রীকে রোববার এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ডা. শেঠি বলেন, অবস্থা গতকালের চেয়ে ভালো। তবে শঙ্কামুক্ত নয়। এখানকার চিকিৎসকরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন। তিনি একটি ভাড়া করা বিমানে সোমবার দুপুর পৌনে ১টায় হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়।