‘অভিনেত্রীদের কোনো কিছুই খারাপ লাগে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে ভোট প্রচারণা। পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীরা এখন থেকেই জোর কদমে নেমে পড়েছেন ভোট প্রচারে।

 

এবারে পশ্চিমবঙ্গের আসানসোল লোকসভা আসন থেকে তৃনমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন গতবারের বাঁকুড়ার বিদায়ী তৃনমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী মুনমুন সেন। এই কেন্দ্র গতবারের জয়ী সাংসদ ছিলেন বিজেপি’র সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়।

গত রবিবার থেকে আসানসোল কেন্দ্রে নির্বাচনী প্রচারে নেমে পড়েছেন মুনমুন। প্রচারের ফাঁকে তিনি জানিয়ে দিলেন, অভিনেত্রীদের কোনও কিছুই খারাপ লাগে না। যখন নিজের ছবি ফটোশপে বিকৃত করা হয় সেটাও তার খারাপ লাগে না।

মুনমুন বলেন, বাঁকুড়াতে আমার একটা পরিচিতি ছিলো। কিন্ত আসানসোলের প্রার্থী হয়ে সবকিছু প্ল্যান করে চলতে হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আসানসোলের ম্যাপ পেয়ে গিয়েছি। সেই মতো প্রচারের ময়দানেও নেমে পড়েছি।’

রাজনীতির ময়দানে বিরোধীদের নানা আক্রমণ প্রসঙ্গে সোজাসাপ্টা মুনমুন জানিয়ে দিলেন, ‘আমার কোনো কিছুই খারাপ লাগে না। আমি আমার কাজটা করি। আগেও আমাকে নিয়ে সেনসেশনাল কথা বলা হতো। তখনও খারাপ লাগতো না। যখন দেখি আমার ছবি ফটোশপ করে বিকৃত করা হয়েছে, খারাপ লাগে না।’

এই আসানসোল আসনে বিজেপির বিদায়ী সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় যদি ফের বিজেপির প্রার্থী হন? এ প্রশ্নের জবাবে মুনমুনের চটজলদি উত্তর, ‘বাবুল বাচ্চা ছেলে। ভালো গান গায়। ও ওর মতো কাজ করবে, আমি আমার মতো কাজ করবো।’

ভোটের ময়দানে গ্ল্যামারের ভূমিকা প্রসঙ্গে মুনমুন বলেন, ‘গ্ল্যামার জানি না। তবে ব্যাক্তিগত পরিচিতিটা প্রয়োজন। আমি মনে করি, উন্নয়নই একমাত্র সমাজকে প্রগতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

আর এবারের ভোটের ময়দানেও তিনি জিততেই নেমেছেন বলে সাফ জানালেন।