ছেলে হত্যাকারীর ফাঁসি চান কুয়েত প্রবাসী বাবা

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

সিলেটের সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে উপজেলার কুয়েত প্রবাসী সফিকুল ইসলামের শিশুসন্তান ফয়সাল (৫) হত্যার প্রধান আসামি তোফায়েল আহমেদকে (১৭) আটক করা হয়েছে।

 

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২৭ এপ্রিল গাজীপুর জেলার শ্রীপুর থানা এলাকা থেকে তোফায়েলকে আটক করে পুলিশ। সে উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের বড়খাল গ্রামের কুরবান আলীর ছেলে।

সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মিজবা উদ্দিনের আদালতে তোফায়েল হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ জবানবন্দি দিয়েছেন। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

দোয়ারাবাজার থানার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আবুবকর সিদ্দিক এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, তোফায়েল কুয়েত প্রবাসী সফিকুল ইসলামের ছেলে ফয়সালকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যে। পরে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়।

 

জানা যায়, ৪ জানুয়ারি সকালে খেলাধুলা করতে গিয়ে নিখোঁজ হয় শিশু ফয়সাল। তার পরিবার আত্মীয়স্বজনদের বাড়ি ও আশপাশের এলাকায় খোঁজ করার পরও কোনো সন্ধান মেলেনি। পরে ৭ জানুয়ারি বড়খাল গ্রামের মরাচেলা খালের পূর্ব পাড়ে একটি শিশুর লাশ দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী থানায় খবর দিলে সেখান থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত ফয়সালের বাবা কুয়েত প্রবাসী সফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রবাসীরা দেশ থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে শতকষ্টের পরও দিনরাত পরিশ্রম করি শুধু একমাত্র পরিবারের সুখ ও শান্তির জন্য। আমার এই মাসুম শিশুসন্তানকে অর্থের লোভে অপহরণ করে হত্যা করা হয়। তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে আরও বলেন, আমার ছেলে হত্যার দ্রুত বিচার ও খুনির ফাঁসি চাই।