চীনের মতো বন্দর নিয়ে যাবে না এমন বিদেশী বিনিয়োগকারী প্রয়োজন, বললেন চেম্বার নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

 বাংলাদেশ-জার্মান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের বর্তমান সভাপতি ব্যারিস্টার ওমর সাদাত মঙ্গলবার ডয়চে ভেলেকে বলেন, জার্মানি আমাদের বড় বাণিজ্যিক অংশীদার। বিশেষ করে গার্মেন্টস পণ্যের দ্বিতীয় বড় বাজার জার্মানি। তারা আমাদের এখানকার টেক্সটাইল খাতে অনেক বড় বিনিয়োগ করেছে। তবে এখন বাংলাদেশ থেকে ওষুধ, চামড়াজাত দ্রব্য এবং সিরামিক পণ্যও যাচ্ছে। পাওয়ার সেক্টরে তাদের বিনিয়োগ আমাদের উপকৃত করবে। জার্মানির বৈশিষ্ট্য হলো, তারা মান বজায় রাখে এবং বন্ধুত্বের মর্যাদা দেয়। তারা বন্দরেও বিনিয়েগ করতে চায়। এটা আমাদের স্বল্প এবং দীর্ঘ মেয়াদে ভালো ফল দেবে। তারা চীনের মতো বন্দর নিয়ে যাবে না।

তিনি বলেন, জার্মানির সঙ্গে বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক সম্পর্ক আছে। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালে ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে জার্মানিই বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি দিয়েছিলো। আর ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার সময় তার কন্যা এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জার্মানিতে ছিলেন।