বাজেটে ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ চায় বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

 ক্ষমতার সাথে যুক্ত ব্যক্তিরাই সড়কে আইন ভাঙছে। ফলে দুর্ঘটনা ও বিশৃঙ্খলা বাড়ছে। দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সরকারের কার্যকরী তৎপরতা দেখা গেলেও জাতীয় বাজেটে এই ব্যাপারে কোন অর্থনৈতিক প্রতিফলন নাই।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ৫ম নিরাপদ সড়ক সপ্তাহ উপলক্ষে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ আয়োজিত “নিরাপদ সড়কঃ আমাদের দায়িত্ব” আলোচনা সভায় বক্তারা এই মন্তব্য করেন।

সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে অর্থনৈতিক কোড চালু, চালক প্রশিক্ষণ, জজনসচেতনতা সৃষ্টি, আক্রান্তদের উদ্ধার, চিকিৎসা সহায়তা ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য সরকারের কাছে জাতীয় বাজেটে ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের দাবি জানায় বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

সংগঠনটির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসাবে প্রতি বছর সারা পৃথিবীতে সড়ক দুর্ঘটনায় ১২ লাখ মানুষের প্রাণ ঝরছে। ২০১২ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২১,৩১৬ জন মানুষ ২০১৬ সালে নিহতের সংখ্যা প্রায় ২৫ হাজার। অর্থাৎ দিনে দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বাড়ছে।

আলোচনা সভায় বিআরটিএ সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব রহনান, বিআরটিএ সহকারী পরিচালক নিয়ামত উল্লাহ লেলিন ও রেড সেফটি অথরিটির সায়েদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।