খেলাধুলা শারীরিক ও মানসিক বিকাশের শিক্ষা দেয় : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, খেলাধুলা কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশের পাশাপাশি শৃঙ্খলাবোধ, অধ্যবসায়, দায়িত্বজ্ঞান, কর্তব্যপরায়ণতা ও সহনশীলতার শিক্ষা দেয়।

তিনি বলেন, মাদকাসক্তিসহ অন্যান্য নেতিবাচক প্রভাব থেকে তরুণ সমাজকে মুক্ত রাখে। ফলে শিশু-কিশোরদের মাঝে নেতৃত্বের বিকাশ ঘটে।

আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭ উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব স্মরণে ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭’ ও ‘বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭’ অনুষ্ঠিত হচ্ছে জেনে প্রধানমন্ত্রী আনন্দ প্রকাশ করেন এবং টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানান।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সুস্থ ও সবল প্রজন্ম গড়ে তুলতে বর্তমান সরকার সবসময়ই খেলাধুলাকে অগ্রাধিকার দিয়েছে। উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত স্টেডিয়াম নির্মাণ, অবকাঠামো উন্নয়নসহ উন্নত প্রশিক্ষণের সুযোগ সৃষ্টি এবং শিক্ষা ও ক্রীড়া প্রতিষ্ঠানে খেলাধুলার সরঞ্জাম সরবরাহ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকার খেলাধুলার প্রসারে আর্থিক অনুদান বৃদ্ধি করেছে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ও জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে। উৎসবমুখর এ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে ফুটবল অঙ্গনে জাগরণ তৈরি হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের মেয়েরা এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ ফুটবলে আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে এবং বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল দল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে ভারতের বিপক্ষে বিজয়ী হয়েছে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা পাকিস্তানি শাসনামলের ২৩ বছরের প্রায় অর্ধেকটা সময় জেল খেটেছেন। পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠীর নির্যাতন এবং বঞ্চনা সহ্য করে জাতিকে মুক্তির স্বপ্ন দেখিয়েছেন। আমাদের দিয়ে গেছেন স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।

প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করে বলেন, এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে দেশ ও দেশের মানুষের জন্য বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার ভালবাসা ও আত্মত্যাগ সম্পর্কে তরুণ প্রজন্ম জানতে পারবে। তাদের জীবনাদর্শে উজ্জীবিত হয়ে কোমলমতি শিশুরা নিজেদের আত্মপ্রত্যয়ী করে গড়ে তুলবে, তৈরি হবে জয়-পরাজয় মেনে নেয়ার মানসিকতা।

তিনি বলেন, পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মধ্যে দেশপ্রেম, শৃঙ্খলা, ভ্রাতৃত্ব, উদারতা ও নেতৃত্বের গুণাবলি অর্জিত হবে। যার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সক্ষম হবে।

বাণীতে শেখ হাসিনা ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭’ ও ‘বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৭’-এর সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।