মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদানের জন্য এমপি শম্ভুকে ভারতে সংবর্ধনা

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদান রাখায় বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য এবং মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ধীরেন্দ দেবনাথ শম্ভুকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় ভারতের আগরতলাস্থ দ্বিবর্ষব্যাপী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মশতবর্ষ উদযাপন কমিটি এই সংবর্ধনার আয়োজন করে।অনুষ্ঠানের সভাপতি ড. দেবব্রত দেব রায় বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় আপনার মাথার মূল্য এক সের স্বর্ণ ঘোষণা করেছিলো পাক হানাদার বাহিনী এবং আপনাকে ধরতে না পেরে আপনার বাবাকে ধরে নিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিলো সেদিন। তাছাড়া বরগুনা শহরে আপনাদের বাড়িটিকে মুক্তিযোদ্ধাদের অস্ত্রাগার হিসেবে ব্যবহার করাসহ সেখান থেকে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালিত করেন আপনি। বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মের কাছে আপনি একজন প্রেরণা পুরুষ। এজন্য আজ আপনাকে সংবর্ধনা জানাতে পেরে আমরা গর্বিত।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে এখানে আসতে পেরে আমি আনন্দিত। আমি বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। একইসাথে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের অবদান আমরা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি। বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন কিন্তু তিনি আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে সপরিবারে নিহত হন। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নগুলো আজ একে একে পূরণ হচ্ছে। আজ বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল একমাত্র শেখ হাসিনার কারণে। তিনি বাংলাদেশকে আজ এক অনন্য শিখরে নিয়ে যাচ্ছেন। যে স্বপ্নকে সামনে রেখে আমরা মুক্তিযুদ্ধে গিয়েছিলাম, বঙ্গবন্ধুর সেই সোনার বাংলার স্বপ্ন শেখ হাসিনার হাত ধরেই আজ বাস্তবায়িত হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ত্রিপুরায় কর্মরত বাংলাদেশের সহকারী হাইকমিশনার কিরিটি চাকমা, সিনিয়র সাংবাদিক শান্তনু শর্মা ভট্টাচার্য, লেখক ও মানবাধিকারকর্মী খোরশেদ আলম বিপ্লব, কবি লুৎফর চৌধুরী, সাংবাদিক অমিত ভৌমি, সংগীত শিল্পী সুলতানা পারভীন রুমা, কবি মোয়াজ্জেম হোসেন ফিরোজসহ আগরতলার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। সভাপতিত্ব করেন কথাশিল্পী ড. দেবব্রত দেব রায়।