নতুন নোট বৃহস্পতিবার থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক | র‍্যাপিড পিআর নিউজ.কম

বাড়তি চাহিদা বিবেচনায় ঈদুল আজহার আগে নতুন নোট ছাড়বে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বাংলাদেশ ব্যাংক ও বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকে বিশেষ কাউন্টার খুলে নতুন নোট দেওয়া হবে। 

আগামী ১ আগস্ট বৃহস্পতিবার থেকে নোট বিনিময় শুরু হবে। একজন ব্যক্তি ১০ থেকে ১০০ টাকা মূল্যমানের নোটের একটি করে বান্ডেল নিতে পারবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, বৃহস্পতিবার ১ আগস্ট থেকে সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির দিন ছাড়া ৮ আগস্ট পর্যন্ত নতুন নোট বিনিময় করা যাবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিলসহ সব শাখা অফিসে বিশেষ কাউন্টার খুলে নোট বিনিময় সেবা দেওয়া হবে। এছাড়া ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুরের বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের নির্দিষ্ট শাখা থেকেও নতুন নোট বিনিময় করা যাবে। একজন ব্যক্তি ১০, ২০, ৫০ ও ১০০ টাকা মূল্যমানের একটি করে বান্ডেল তথা একশ' পিস করে মোট ১৮ হাজার টাকা নিতে পারবেন। এর বাইরে কেউ চাইলে যে কোনো মূল্যমানের ধাতব মুদ্রা নিতে পারবেন। একই ব্যক্তি একাধিকবার নতুন নোট নিতে পারবেন না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিস ছাড়াও বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের ৩০টি শাখা থেকে নতুন নোট দেওয়া হবে। শাখাগুলো হলো- ঢাকা মহানগরীর এনসিসি ব্যাংকের যাত্রাবাড়ী, জনতা ব্যাংক আব্দুল গণি রোড করপোরেট, অগ্রণী ব্যাংক জাতীয় প্রেস ক্লাব, এনআরবি গ্লোবালের মিরপুর, সাউথইস্ট ব্যাংকের কারওরান বাজার, এসআইবিএলের বসুন্ধরা সিটি, উত্তরা ব্যাংকের চকবাজার, সোনালীর রমনা করপোরেট, ঢাকা ব্যাংকের উত্তরা, আইএফআইসির গুলশান, ন্যাশনাল ব্যাংকের মহাখালী, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামীর মোহাম্মদপুর, জনতার রাজারবাগ, পূবালীর সদরঘাট শাখা, সাউথইস্ট ব্যাংকের কাকরাইল, ওয়ান ব্যাংকের বাসাবো, ব্র্যাক ব্যাংকের শ্যামলী, ডাচ্‌-বাংলার দক্ষিণখান এসএমই অ্যান্ড এগ্রিকালচার শাখা, প্রিমিয়ারের বনানী, ব্যাংক এশিয়ার ধানমণ্ডি, সিটি ব্যাংকের বেগম রোকেয়া সরণি, আল-আরাফাহ্‌ ইসলামীর নন্দীপাড়া এবং প্রাইম ব্যাংক এলিফ্যান্ট রোড শাখা থেকে নতুন নোট দেওয়া হবে।

ঢাকা মহানগরীর বাইরে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ শাখা এবং এপিম ব্যাংকের শিমরাইল শাখা নতুন নোট দেবে। ইসলামী ব্যাংক এবং ইউসিবিএলের গাজীপুর চৌরাস্তা শাখা। উত্তরা ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের সাভার শাখা এবং ট্রাস্ট ব্যাংকের কেরানীগঞ্জ শাখায় নতুন নোট পাওয়া যাবে।