spot_img
spot_img

বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, রাত ১০:২৪

সর্বশেষ
বাগমারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতার, দ্রুত মুক্তির দাবি মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধে অতিরিক্ত গতির গাড়ির বিরুদ্ধে তৎপর হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে হেলমেট পরিধানে উদ্বুদ্ধ করছে হাইওয়ে পুলিশ খুলনায় বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ বাগেরহাটে র‌্যাবের ভেজাল বিরোধী অভিযান, তিন প্রতিষ্ঠানকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা ইসলামী ব্যাংক ও পার্কভিউ হসপিটাল-এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড-এর মধ্যে ‘মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রিপেইড মিটারের বিল প্রদান’ বিষয়ক চুক্তি স্বাক্ষর
প্রচ্ছদঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জসেন্টমার্টিনগামী স্পিডবোট ও ট্রলারের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-২, আহত-৫, নিখোঁজ-১

সেন্টমার্টিনগামী স্পিডবোট ও ট্রলারের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-২, আহত-৫, নিখোঁজ-১





কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে যাত্রীবাহী স্পিডবোট চালাতে গিয়ে ফিশিং ট্রলারের মুখোমুখি সংর্ঘষে ডুবে গিয়ে স্পীডবোটের দুই যাত্রী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় এক শিশু নিখোঁজ ও ৫ যাত্রী আহত হয়েছেন। ৮ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) দুপুর আড়াইটার দিকে টেকনাফ পৌরসভার কায়ুকখালী খাল সংলগ্ন নাফ নদীর বিজিবি চৌকি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা ব্যক্তি হলেন-সেন্টমার্টিন ইউ পি চেয়ারম্যানের শাশুড়ী আব্দুল জলিলের স্ত্রী মেহেরুন্নেসা ও পশ্চিমপাড়ার বাটু মিয়ার স্ত্রী রশিদা বেগম ও আহতরা হলেন- মামুন, মোঃ আমিন, জাহারো বেগম, সোহেল, মমতাজ বেগম। স্পীডবোটে থাকা আহত যাত্রীরা জানান- টেকনাফ পৌরসভার কেকে ঘাট থেকে ৮ জন যাত্রী নিয়ে কাইছার নামে এক চালক সেন্টমার্টিন উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে। রওয়ানার কিছুদূর পর বিজিবি চেকপোষ্ট পার হওয়ার পর পরই সামনে থাকা ফিশিং ট্রলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এসময় স্পীডবোট যাত্রীসহ উল্টে যায়।
এতে স্পিডবোটটি ডুবে ৬ যাত্রী আহত হয়।

আহতদের মধ্যে ৬ যাত্রী টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ ব্যাপারে সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান- এ ঘটনায় রশিদা বেগম নামে এক মহিলা নিহত হয়েছে এবং সুমাইয়া নামে এক কন্যা শিশু এখনো নিখোঁজ রয়েছে। টেকনাফ মেরিনসিটি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুজ্জামান জানান-মূমূষু এক মহিলাকে এখানে আনা হয়। হাসপাতালে আনার আগে তার মৃত্যু হয়। এ বিষয়ে টেকনাফ কোস্ট গার্ড স্টেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট আমিরুল জানান এ বিষয়ে আমরা অবগত আছি নিখোঁজ শিশুর উদ্ধার অভিযান চলমান রয়েছে।

বার্তা প্রেরক
এম এ হাসান
টেকনাফ প্রতিনিধি







মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত