spot_img
spot_img

বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, সকাল ৭:৩৯

সর্বশেষ
বাগমারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতার, দ্রুত মুক্তির দাবি মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধে অতিরিক্ত গতির গাড়ির বিরুদ্ধে তৎপর হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে হেলমেট পরিধানে উদ্বুদ্ধ করছে হাইওয়ে পুলিশ খুলনায় বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ বাগেরহাটে র‌্যাবের ভেজাল বিরোধী অভিযান, তিন প্রতিষ্ঠানকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা ইসলামী ব্যাংক ও পার্কভিউ হসপিটাল-এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড-এর মধ্যে ‘মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রিপেইড মিটারের বিল প্রদান’ বিষয়ক চুক্তি স্বাক্ষর
প্রচ্ছদআন্তর্জাতিকসাগরে ঝাঁপ পর্তুগালের প্রেসিডেন্টের!

সাগরে ঝাঁপ পর্তুগালের প্রেসিডেন্টের!





পতুর্গালের প্রেসিডেন্ট মের্সেলো হেবেলো ডি সউসা সাগরে ডিঙ্গি উল্টে বিপদে পড়া দুই নারীকে উদ্ধারে সাহায্য করেছেন। শনিবার তোলা ছবিতে ৭১ বছর বয়সী এই প্রেসিডেন্টকে পানিতে পড়ে হাবুডুবু খেতে থাকা ওই দুই নারীর দিকে সাঁতরে যেতে দেখা গেছে। দেশটির আলগারবি সমুদ্রসৈকতে ঘটেছে এমন ঘটনা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, প্রারিয়া দ্যু আলভোর সমুদ্রসৈকতে প্রেসিডেন্ট যখন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন তখন তিনি ওই নারীদের সাগরে হাবুডুবু খেতে দেখেন। তৎক্ষণাৎ নারীদের সহায়তা করতে তিনি সাঁতরে সাগরে যাচ্ছেন, ওই মুহূর্তগুলো ভিডিও ফুটেজে ধরা পড়েছে।

তবে ওই নারীদের সহায়তা করতে সেখানে আরেক ব্যক্তি উপস্থিত হয়েছিলেন, সাহায্যের জন্য আরেক ব্যক্তি জেট স্কি নিয়ে সেদিকে ছুটে যান। জেট স্কিতে থাকা ওই ব্যক্তিই রাবারের ডিঙ্গিটিকে তীরে নিয়ে আসতে সক্ষম হন। ওই নারীদের সহায়তা করার পর প্রেসিডেন্ট সউসা সাংবাদিকদের জানান, ওই নারীরা পাশের আরেকটি সমুদ্রসৈকত থেকে স্রোতের টানে সাগরে ভেসে যাচ্ছিল।

‘সেখানে পশ্চিমমুখী বড় ধরনের একটি স্রোত থাকায় তারা ভেসে যায়, তাদের ডিঙ্গি উল্টে যায়, প্রচুর পানি তাদের পেটে চলে যায় আর এমনকি ডিঙ্গিটিকেও (কায়াক) সোজা করতে পারছিল না তারা, সেটির উপর উঠতেও পারছিল না বা সাঁতারও কাটতে পারছিল না; স্রোত এতই প্রবল ছিল,’ স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেছেন তিনি। প্রেসিডেন্ট আরও জানান, জেট স্কিতে করে আসা আরেকজন ‘দেশপ্রেমিক’ তাকে সাহায্য করেছেন। ভবিষ্যতে ওই নারীদের সাবধান হতে হবে বলে সতর্কও করেন তিনি।

বর্তমানে প্রেসিডেন্ট সউসা আলগারবিতে ছুটি কাটাচ্ছেন। ওই এলাকার পর্যটনকে তুলে ধরতে তিনি সেখানে অবস্থান করছেন। পর্তুগালের অর্থনীতি প্রধানত পর্যটন শিল্প নির্ভর, কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এ খাত এখন ভীষণ চাপে পড়েছে। সম্প্রচারমাধ্যম টুয়েন্টি মিনোতিস জানিয়েছে, পর্যটনকে চাঙ্গা করতে প্রেসিডেন্ট দেশের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শ করার মাধ্যমে তার ছুটি কাটাচ্ছেন।







মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত