spot_img
spot_img

বৃহস্পতিবার, ৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, সকাল ৮:২৪

সর্বশেষ
বাগমারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতার, দ্রুত মুক্তির দাবি মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধে অতিরিক্ত গতির গাড়ির বিরুদ্ধে তৎপর হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে হেলমেট পরিধানে উদ্বুদ্ধ করছে হাইওয়ে পুলিশ খুলনায় বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ বাগেরহাটে র‌্যাবের ভেজাল বিরোধী অভিযান, তিন প্রতিষ্ঠানকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা ইসলামী ব্যাংক ও পার্কভিউ হসপিটাল-এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড-এর মধ্যে ‘মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রিপেইড মিটারের বিল প্রদান’ বিষয়ক চুক্তি স্বাক্ষর
প্রচ্ছদমন্ত্রণালয়ধুনটে বিধবা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ২

ধুনটে বিধবা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ২





বগুড়ার ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নে হাসিলা খাতুন (৪১) নামে এক বিধবা ভিক্ষুককে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন গ্রেফতারকৃত দুই আসামী।

আসামী বাদশা আলম (২৮) উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের আনারপুর কচুগাড়ি গ্রামের সামছুল মন্ডলের ছেলে ও আসামী ফজলুল হক (৩২) আনারপুর হঠাৎপাড়া গ্রামের বাদু মন্ডলের ছেলে। রবিবার সকালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ধুনট থানার এসআই আকবর আলী এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বগুড়া আমলি আদালাতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট খালিদ হাসান গত শনিবার সন্ধ্যায় আসামীদের জবানবন্দি গ্রহণ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে নিহত হাসিলা বেগমের মোবাইল ফোনের কললিষ্টের সূত্র ধরে ১৬ অক্টোবর রাতে আসামীদের নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের ঘুগরাপাড়া গ্রামের শুকর আলী মন্ডলের মেয়ে হাসিলা খাতুন (বিধবা) সারাদিন গ্রামে গ্রামে ঘুরে ভিক্ষাবৃত্তির মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করতো। গত ১৩ অক্টোবর সকালে বাড়ির পাশে আবাদী ধানক্ষেতের পাশে একটি পতিত জমি থেকে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় হাসিলা খাতুনের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। ঘটনার আগের দিন ১২ অক্টোবর সন্ধ্যায় ভিক্ষা শেষে বাড়ি ফিরে পাশের আনারপুর গ্রামে বোনের বাড়ি গিয়েছিলেন হাসিলা খাতুন। ফেরার পথে তাকে ধানক্ষেতের পাশে নিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) কামরুজ্জামান মিঞা বলেন, গ্রেফতারকৃত দুই আসামি বাদশা আলম ও ফজলুল হক ভিক্ষুক হাসিলাকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। এতে ব্যর্থ হয়ে তাকে হত্যা করেবলে দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। আদালতের নির্দেশে তাদের বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এই হত্যাকান্ডের সাথে আরো কয়েকজন জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন আসামীরা। তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বার্তা প্রেরক
ফজ‌লে রাব্বী মানু
বগুড়া প্রতিনিধি







মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত