spot_img
spot_img

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, দুপুর ১:১২

সর্বশেষ
বাগমারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতার, দ্রুত মুক্তির দাবি মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধে অতিরিক্ত গতির গাড়ির বিরুদ্ধে তৎপর হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে হেলমেট পরিধানে উদ্বুদ্ধ করছে হাইওয়ে পুলিশ খুলনায় বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ বাগেরহাটে র‌্যাবের ভেজাল বিরোধী অভিযান, তিন প্রতিষ্ঠানকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা ইসলামী ব্যাংক ও পার্কভিউ হসপিটাল-এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড-এর মধ্যে ‘মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রিপেইড মিটারের বিল প্রদান’ বিষয়ক চুক্তি স্বাক্ষর
প্রচ্ছদঅন্যান্যআসাদের নামে স্লোগান না দিলে পানি দেয়া হবে না

আসাদের নামে স্লোগান না দিলে পানি দেয়া হবে না

সিরিয়ান এক সংসদ সদস্য পূর্ব ঘৌটা ছেড়ে যাওয়া মানুষকে সিরিয়ান প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ এর নামে স্লোগান না দিলে পানি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। টিআরটি ওয়ার্ল্ড নামক তুরস্কের এক টেলিভিশনের ফেসবুক পাতায় প্রকাশিত এক ভিডিও থেকে বিষয়টি জানা গেছে।
ভিডিওতে দেখা গেছে, সিরিয়ান সংসদ সদস্য মোহামেদ কাবান্দ হাতে পানির বোতল নিয়ে পূর্ব ঘৌটা ছেড়ে যাওয়া উদ্বাস্তুদের জোরে জোরে বলছেন, তোমার প্রেসিডেন্ট কে? মানুষ হাত বাড়িয়ে পানি নেয়ার জন্য অপেক্ষা করছে। তখন কাবান্দ আবারও জিজ্ঞেস করলেন, তোমার প্রেসিডেন্ট কে? উদ্বাস্তুরা যখনি জবাব দিচ্ছে বাশার আল আসাদ, কেবল তখনি পানি তাদের হাতে তুলে দেয়া হচ্ছিল।
সিরিয়ান সংসদের এই সদস্য আরও বলছিলেন, সিরিয়া বাশার আল আসাদের নেতৃত্বে বিজয়ী হয়। এই কথাটি বলে তিনি বলেন, আমার সঙ্গে কথাটি রিপিট করো। মানুষ তার কথার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বলার পরই কেবল পানির বোতল তাদেরকে দেয়া হচ্ছিল।

এই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। এমনকি আসাদ সমর্থক অনেকেও এই সংসদ সদস্যের ভিডিওটি দেখে বিষোদাগার করেছেন।
সাংবাদিক ম্যাগি খোজাম এই সাংসদকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার মতো মানুষদের কারণেই সিরিয়া আজকের অবস্থানে এসেছে। একজন প্রেসিডেন্টের প্রতি আনুগত্য এভাবে জোর করে আনা যায় না। আর একজন ক্ষুধার্ত ও তৃষ্ণার্ত মানুষকে আপনি এভাবে জোরও করতে পারেন না। যদি এই ভিডিও প্রকাশ হওয়ার পরও এই লোক এমপি হিসেবে থাকেন তাহলে বুঝতে হবে, পুরো সিরিয়াই দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে।
এর আগেও কাবান্দ প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের প্রতি আনুগত্য দেখাতে গিয়ে অনেক বিতর্কিত ও  জনবিরোধী কথা বলেছেন।
উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সিরিয়ান সরকারের সঙ্গে পূর্ব ঘৌটায় দুই বিদ্রোহী গ্রুপ সমঝোতায় পৌঁছায়। এর পরপরই হাজার হাজার স্থানীয় অধিবাসী এবং বিদ্রোহী সেনারা বাসে করে এলাকাটি ত্যাগ করে।
সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের নিকটবর্তী এই এলাকাটি বিগত পাঁচ বছর ধরে রাশিয়া সমর্থিত সিরিয়া সরকারের সেনা কর্তৃক অসংখ্য বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। হাজার হাজার সিরিয়ানদের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে এ সময়ে। জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেল আন্তোনিও গুতেরাস পূর্ব ঘৌটার এই অবস্থাকে ‘পৃথিবীর মধ্যে জাহান্নাম’ বলে ঘোষণা করেছিলেন।

মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত