spot_img
spot_img

বুধবার, ৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, দুপুর ১:৪৭

সর্বশেষ
বাগমারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় গ্রেফতার, দ্রুত মুক্তির দাবি মহাসড়কে দুর্ঘটনা রোধে অতিরিক্ত গতির গাড়ির বিরুদ্ধে তৎপর হাইওয়ে পুলিশ মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে হেলমেট পরিধানে উদ্বুদ্ধ করছে হাইওয়ে পুলিশ খুলনায় বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ বাগেরহাটে র‌্যাবের ভেজাল বিরোধী অভিযান, তিন প্রতিষ্ঠানকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা ইসলামী ব্যাংক ও পার্কভিউ হসপিটাল-এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিঃ ও বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড-এর মধ্যে ‘মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রিপেইড মিটারের বিল প্রদান’ বিষয়ক চুক্তি স্বাক্ষর
প্রচ্ছদলাশ দেখার সুযোগও পাচ্ছেন না স্বজনরা
Array

লাশ দেখার সুযোগও পাচ্ছেন না স্বজনরা

নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে নিহত হয়েছে ৫১ জন। কিন্তু একদিন পার হয়ে গেলেও নিহতদের স্বজনদের মরদেহ দেখতে দেয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। কাঠমান্ডু ও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বাংলাদেশ অফিসে আরটিভির প্রতিনিধির সাথে স্বজনরা এসব অভিযোগ করেন।  

নিহতের আত্মীয়দের মধ্যে একজন জানান, আমরা চাই মরদেহের শেষ ভস্মটুকু, শেষ ছায়াটুকু যেন আমাদের কাছে খুব তাড়াতাড়ি চলে আসে।

আরেকজন নিহতের বাবা জানান, আমার ছেলের মরদেহটা আমি যেন সহজে পেতে পারি, কখন এবং কীভাবে কমসময়ে পেতে পারি এ বিষয়টা জানতে চাই।

অপরদিকে ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের মর্গের সামনে গতকাল বাংলাদেশ থেকে যাওয়া নিহতদের বাংলাদেশি ও নেপালি স্বজনরা অপেক্ষা করছেন। সবার মনেই একটা প্রশ্ন কখন তাদের স্বজনদের মরদেহ দেখতে পাবেন এবং দেশে নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সবার ময়নাতদন্ত শেষ হওয়ার পরই মরদেহ হস্তান্তর করার ব্যবস্থা নেয়া হবে। কিন্তু স্বজনদের প্রশ্ন, অনেক মরদেহের চেহারা স্পষ্টভাবে চিহ্নিত করা যাচ্ছে, তাদের মরদেহ হস্তান্তরে দেরি কেন হচ্ছে?

সোমবারের ওই দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ২৬ জন বাংলাদেশি মারা গেছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এই সব মরদেহ কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা হাসপাতালের ফরেনসিক ল্যাবে রয়েছে।

মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত