spot_img
spot_img

মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, রাত ৯:৫৩

প্রচ্ছদতাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কে মেরামতের নামে জনদূর্ভোগ
Array

তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কে মেরামতের নামে জনদূর্ভোগ

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার গুরুত্বপূর্ন তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কটিতে মেরামতের জন্য তিন ভাগে সাড়ে ৩কোটি টাকার বরাদ্ধ হলেও পুরুধমে কাজ শুরু করছে না দায়িত্বপ্রাপ্ত্যরা। মেরামতের নামে তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কে ২জন কন্ট্রাকটারের লোকজন দু-মাস পূর্বে সড়কের মাটি তুলে এলোমেলো ভাবে এদিক-সেদিক মাটি ফেলে রাখায় কোন ধরনের যানবাহন চলাচল করতে না পারায়ন জনদূর্ভোগ বেড়েছে দিগুন। ফলে উপজেলার ৪লক্ষাধিক জনসাধরনের মধ্যে চরম ক্ষোব বিরাজ করছে। 
স্থানীয় জানাযায়,তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কটিতে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হলেও গত কয়েক মাস ধরেই আরো বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। ভাঙ্গা,ছোঁড়া ও বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় ভাল মানের যানবাহন চলাচল করতে না পারলেও রিক্সা,টমটম,ঠেলাগাড়ি ও মটর সাইকেল চলাচল করতে গিয়ে প্রতিদিনেই ঘটছে নানা রকমের দূর্ঘটনা। স্থানীয় লোকজন উর্ধবতন কর্মকর্তাদের বার বার জানানোর পরও কোন কাজ শুরু করছে না দায়িত্বপ্রাপ্ত্য কন্ট্রাকটার। আরো জানাযায়,উপজেলা সদর থেকে বাদাঘাট ইউনিয়নের দূরত্ব মাত্র ৮কিলোমিটার আর উপজেলার ব্যাবসা বানিজ্যের প্রান কেন্দ্র বাদাঘাট বাজার এছাড়াও উত্তর বড়দল,দক্ষিন বড়দল,তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন,৩টি শুল্ক ষ্টেশন,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স,শাহ-আরেফিন(৯রাঃ),পর্নর্তীথ এলাকায় যাওয়ার সড়ক,১টি কলেজ ও ছোট ছোট শতাধিক গ্রামের হাজার হাজার জনসাধারনের চলাচলের একমাত্র সড়ক। এ সড়কটিতে র্দীঘ দিন ধরেই ভাঙ্গা,ছোঁড়া ও বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছিল। এখন ঠিকাদারেই আরো বেশী মেরামতের নামে দূর্ভোগ সৃষ্টি করে রেখেছে। ফলে এই সড়কটি উপজেলার ৪লক্ষাধিক জনসাধরনের এখন গলার কাটা হয়ে দাড়িয়েছে।
আরো জানাযায়,তাহিরপুর উপজেলা এলজিইডি কার্য্যালয় সূত্রে জানাযায়-১৯৯৩সালে এলজিইডি তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কটি নির্মানের উদ্দ্যোগ গ্রহন করে। পরে প্রতি বছর নাম মাত্র সংস্কার করার পরে বিভিন্ন চড়াই উতরাই পেরিয়ে ৮বছর পূর্বে ২০১১-১২অর্থ বছর পযর্ন্ত সড়কের ৬কিলোমিটার পাকা করা হয়েছে। এরপর সম্প্রতি তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কের টাকাটুকিয়ায় কোটি টাকা ব্যয়ে একটি নির্মিত ব্রীজের দু-পাশের সংযোগের জন্য ৬৩লাখ টাকা। পাতারগাঁও এলাকায় অপরিকল্পিত ভাবে নির্মিত তিনটি ব্রীজকে একত্রে যুক্ত করা সেই ব্রীজ গুলোর দু-পাশের সংযোগ মাটি ও পাতাঁরগাঁও এর পূর্ব দিকে থেকে বাদাঘাট বাজার পর্যন্ত সড়কে মেরামতের জন্য ১কোটি ৩৯লাখ টাকা ও থানার সম্মুখ থেকে সূর্যেরগাও এলাকার পাকা সড়ক পর্যন্ত ১কোটি ১২লাখ টাকা পল্লী সড়ক কালভার্ড মেরামত কর্মসূচির আওতায় (জিওবি) প্রকল্পে মেরামত কাজের জন্য বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে।
ক্ষোবের সাথে এলাকাবাসী জানায়,স্বাধীনতার ৪৭বছর পার হলেও এই সড়কের দূর্ভোগ থেকে মুক্তি পায় নি উপজেলাবাসী। অথছ এউপজেলা থেকে প্রতি বছর সরকার প্রচুর পরিমানে রাজ্যস্ব পাচ্ছে। যারাই ক্ষমতায় এসেছে তারাই নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্থ থাকে। ১৪মার্চ ও ১৫মার্চ থেকেই লাউড়েরগড় ও রাজারগাও এলাকায় দু-ধর্মের দুটি বৃহত্তর ধর্মীয় অনুষ্টান শুরু হয়েছে। ভাঙ্গা চুরা অবস্থায় এসড়কটি দিয়েই এখন লাখ লাখ ভক্তগন,পূনার্থী ও দর্শনার্থীরা চলাচল করছে কষ্ট করছে কারো নজরেই পরছে না। 
ডাঃ হাফিজ উদ্দিন,সুলতান মাহমুদ,শফিকুল সহ চলাচলকারী লোকজন বলেন-এই রাস্তাটি খুবেই গুরুত্বপূর্ন বর্তমানে এই সড়ক দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে আমাদের। আর মেরামত না হওয়ায় এখন এই সড়ক দিয়ে শাহ-আরেফিন ও পর্নর্থীথ মেলার হাজার হাজার লোকজন যাচ্ছে খুব কষ্ট করে। দ্রুত মেরামত করা প্রয়োজন। 
ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম,রাশিদ ভূইঁয়া,ইফসুফ আল মামুন,সাদেক আলী,বিশ্বজিৎ সহ অনেকেই বলেন,এই সড়কে ভাঙ্গা ছোঁড়া থাকায় বিভিন্ন প্রকার মালামাল পরিবহনে চরম দুর্ভোগ আর অতিরিক্ত টাকা দিতে হচ্ছে। মেরামত করার জন্য বরাদ্ধ হয়েছে শুনেছি এখনও কাজ শুরু করে নি। কখন করবে বৃষ্টি হলে দূর্ভোগের শেষ থাকবে না।
এই সড়ক দিয়ে চলাচলকারী বিভিন্ন প্রতিষ্টানের সরকারী চাকুরীজীবি,শিক্ষক,ছাত্র-ছাত্রীরা জানান,এই সড়কটির দিয়ে টাকাটুকিয়ায় কলেজ,হাসপাতালে,উপজেলা সদরে ও উচ্চ বিদ্যালয় যাওয়া এখন খুবেই কষ্টের হয়ে দাড়িঁয়েছে। গত দু-মাস ধরেই পাতারগাও এলাকায় বেশী ভাঙ্গাচুরা অবস্থা করে রেখেছে কন্ঠ্রাকটারের লোকজন। 
তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন জানান-খুবেই গুরুত্বপূর্ন তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়ক। এ সড়কটির একাধিক স্থানে ভাঙ্গনের ফলে চলাচলে দূর্ভোগ পোহাচ্ছিল এলাকাবাসী। কাজ শুরু হয়েছে এলাকাবাসীর কষ্টের শেষ হবে।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল জানান-তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কটি উপজেলার গুরুত্বপূর্ন সড়ক। ভাঙ্গাচুরা থাকায় চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে চলাচলকারীগন। সবার সুবিধার স্বার্থে এ সড়কটি কে গুরুত্ব সহকারে দ্রুত সংস্কার করা জন্য সংশ্লিষ্ট কৃতপক্ষকে বলব।

মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত