spot_img
spot_img

বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, রাত ৮:০৪

প্রচ্ছদফেসবুক, গুগল ও টুইটারের প্রধানকে সমন
Array

ফেসবুক, গুগল ও টুইটারের প্রধানকে সমন

তথ্য চুরি নিয়ে আঙুল ফেসবুকের দিকে উঠলেও ছাড় পাচ্ছে না গুগল, টুইটারও। মার্কিন প্রতিনিধিসভার একটি শক্তিশালী কমিটি সমন জারি করেছে এই তিনটি সংস্থার প্রধানের উদ্দেশে।  ফেসবুকের মার্ক জাকারবার্গ, গুগলের সুন্দর পিচাই ও টুইটারের জ্যাক ডরসিকে আগামী মাসে ওই কমিটির সামনে হাজির হয়ে সাক্ষ্য দিতে বলা হয়েছে। আনন্দবাজার, সিএনএনের।  

তথ্য সুরক্ষার নীতি ও এর বিভিন্ন দিক সম্পর্কে জানতে চাওয়া হবে তাদের কাছ থেকে। ফেসবুকের কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, জাকারবার্গ ওই কমিটির সামনে হাজিরা দেবেন। মার্কিন কেন্দ্রীয় বাণিজ্য কমিশন (এফটিসি) জানাচ্ছে, অভিযোগ খুবই গুরুতর। তথ্য-সুরক্ষার বিষয়টি নিয়ে তারা তদন্ত শুরু করেছে। যদিও এটি প্রকাশ্য তদন্ত নয়। এফটিসি দেখবে, ফেসবুক ২০১১ সালে অনুমতির নিয়ম ভেঙেছিল কিনা। আর ২০১৪ সালে মানুষের তথ্য হাতিয়ে নিতে ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকাকে কীভাবে সাহায্য করেছিল তারা।  

অন্যান্যভাবেও ব্যক্তি বা নির্দিষ্ট গোষ্ঠীকে নিশানা করা তথা ‘মাইক্রো-টার্গেটিং’-এর কাজে ফেসবুকের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলোর নিত্যনতুন ভূমিকার কথা উঠে আসছে। এমনকি জানা গেছে, আমেরিকায় অভিবাসীরা কে কোথায় রয়েছেন, কী করছেন— এ সবের ওপর নজর রাখতে ফেসবুকের পেছন দরজা ব্যবহার করে সেদেশের অভিবাসন ও শুল্ক দপ্তরও।  

এদিকে তথ্য-কেলেঙ্কারি সামনে আসায় ১০ দিনে ফেসবুকের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ৯ হাজার কোটি ডলার। ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার ঘটনা নিজেরা তদন্ত করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছিলেন মার্ক জাকারবার্গ। কিন্তু ক্ষমা চাইতে ভোলেননি।

শুধু তাই নয় ছয়টি ব্রিটিশ পত্রিকায় এক পৃষ্ঠার বিজ্ঞাপন দিয়েছেন। তারপরও সমস্যা কাটেনি। বরং দেশে দেশে তদন্তের মুখে পড়েছেন জাকারবার্গ। আর তাই তাদের হয়ে তদবির করার জন্য ১১ জন ‘লবিস্ট’ নিয়োগ করছে ফেসবুক।

মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত