spot_img
spot_img

মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, রাত ৮:৪৪

প্রচ্ছদআত্মহত্যা নয়, সরকারি চাকরি চাই’
Array

আত্মহত্যা নয়, সরকারি চাকরি চাই’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে হাঁটছিলেন এক তরুণ। ঊর্ধ্বাঙ্গে নেই জামা। পিঠে হলুদ রঙ দিয়ে লেখা ‘সরকারি চাকরি চাই’, বুকে লেখা ‘জয় বাংলা’। ক্যাম্পাসের এদিক-ওদিক হাঁটছিলেন আর একটু পর পর বলছেন, ‘আত্মহত্যা নয়, সরকারি চাকরি চাই’। মাঝে মধ্যে ‘জয় বাংলা’ স্লোগানও দিচ্ছেন।
সরকারি চাকরি না পাওয়ার হতাশা থেকে যেন কাউকে আত্মহত্যা করতে না হয়, তরুণদের পক্ষ থেকে সেই দাবি নিয়েই ক্যাম্পাসে ঘুরছিলেন এই তরুণ। কথা বলে জানা গেলো তার নাম আরিফুজ্জামান। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী কলেজ থেকে স্নাতক শেষ করে এখন ঢাকা কলেজের ইংরেজি বিভাগে স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে পড়ছেন। বয়সও ৩০ পেরিয়ে গেছে।
জানতে চাইলে আরিফুজ্জামান  বলেন, সরকারি চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে বয়সের সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার পাশাপাশি কোটাধারীদের সঙ্গেও পাল্লা দিতে গিয়ে বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন তরুণরা। যে কারণে তরুণদের মধ্যে তৈরি হচ্ছে হতাশা। নষ্ট হচ্ছে তরুণদের প্রতিভা, তারা সামর্থ্যের প্রয়োগ ঘটাতে পারছেন না দেশ ও দেশের মানুষের জন্য। আবার চাকরি না পাওয়ায় পরিবারের আর্থিক সঙ্কট তারা দূর করতে পারছেন না, সামাজিকভাবেও অনেককে গঞ্জনা সহ্য করতে হচ্ছে। তীব্র এই হতাশা থেকে আত্মহননের পথও বেছে নিতে বাধ্য হচ্ছেন অনেক তরুণ। শনিবার (৩১ মার্চ) ঢাবির সান্ধ্যাকালীন এমবিএ কোর্সের শিক্ষার্থী তানভীর রহমানের আত্মহত্যার ঘটনাও তারই উদাহরণ। এ ঘটনার শিকার যেন তরুণদের না হতে হয়, সেই বার্তা সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতেই আরিফুজ্জামান রাজপথে নেমেছেন।
তিনি বলেন, ‘আমি আত্মহত্যা করতে চাই না, আমি সরকারি চাকরি চাই। কিন্তু সরকারি চাকরির বয়সসীমা ৩০ বছর। সেশন জট পেরিয়ে পড়ালেখা শেষ করে এই বয়সসীমার মধ্যে চাকরি পাওয়া অনেক কঠিন। একদিকে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা যেমন অনেক বেশি, অন্যদিকে কোটার কারণে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও অনেক তরুণই চাকরিবঞ্চিত হচ্ছে। কিন্তু আমার মতো অনেকেই আছেন যাদের সরকারি চাকরি খুব দরকার। বারবার পরীক্ষা দিয়েও সেই সুযোগ আমাদের হয় না।’
আরিফুজ্জামান আরও বলেন, ‘এরই মধ্যে আমার সরকারি চাকরির বয়স শেষ। বয়সের কারণে আর কোথাও আবেদন করতে পারছি না। একদিকে বয়সের এই স্বল্পতা, অন্যদিকে ৫০ ভাগেরও বেশি কোটা—সব মিলিয়ে আমাদের হতাশ হওয়া ছাড়া আর কী উপায় আছে!’
আরিফুজ্জামানের আশাবাদ, ভবিষ্যতে হয়তো যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও সরকারি চাকরি না পেয়ে আর কাউকে হতাশাগ্রস্ত হতে হবে না।
উল্লেখ্য, শনিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ ভবনের ৯ তলা থেকে লাফ দিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেন তানভীর রহমান নামে সান্ধ্যকালীন এমবিএ কোর্সের একজন শিক্ষার্থী। তার স্বজনরা বলছেন, সরকারি চাকরি না পাওয়ার তীব্র হতাশা থেকেই আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

spot_img
spot_img
spot_img

সর্বাধিক পঠিত